Advertisement
২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Dwitiyo Purush

মিমের ফাঁদ পাতা ভুবনে

‘দ্বিতীয় পুরুষ’ ছবির ‘যে ক’টা দিন’ গানটা মুক্তি পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মিম ভরে গিয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ভাইরাল হওয়া মিম

ভাইরাল হওয়া মিম

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৭ জানুয়ারি ২০২০ ০০:০২
Share: Save:

ব্যঙ্গ কিংবা নিছক মজার জন্যই লোকে আগে জোক্‌স পাঠাতেন, প্যারোডি করতেন। সোশ্যাল মিডিয়ার জমানায় সেই জায়গাটা দখল করেছে মিম। এই মিমের গুঁতো থেকে রেহাই নেই সেলেব্রিটিদেরও। কিন্তু কিছু মিম রুচির পরিপন্থী হলে গোঁসাও হয়!

‘দ্বিতীয় পুরুষ’ ছবির ‘যে ক’টা দিন’ গানটা মুক্তি পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মিম ভরে গিয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। ‘২২ শে শ্রাবণ’ ছবিতে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের সংলাপ ‘জীবনে ভাত-ডাল আর বিরিয়ানির তফাতটা বুঝতে শেখো। প্রথমটা নেসেসিটি, দ্বিতীয়টা লাক্সারি’ উদ্ধৃত করে নেটিজ়েনরা মিম পোস্ট করতে থাকেন। ছবিতে রাইমা সেন, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় এবং আবীর চট্টোপাধ্যায়ের ত্রিকোণ প্রেমের একটি অ্যাঙ্গল ছিল। সিকুয়েল ‘দ্বিতীয় পুরুষ’এ রাইমা ও পরমব্রতের বিয়ে দেখে আবীরের দীর্ঘশ্বাসের দৃশ্য ভাইরাল। সে ছবির পাশে বসানো হয়েছে চটুল সংলাপ। এতে হাসি-ঠাট্টার পাশাপাশি উত্তেজনাও বাড়ছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের আপত্তি স্পষ্ট করেছেন আবীর। তাঁর পোস্ট, ‘অজস্র মিম তৈরি হচ্ছে... শুধু একটা কথা বলতে চাই। আপনার পছন্দের খাবার যাই হোক না কেন মনে রাখবেন... গেস্ট সব সময়েই গেস্ট থাকে আর হোস্ট হোস্ট-ই থাকে।’ ‘দ্বিতীয় পুরুষ’-এর নির্মাতারাও বুঝেছেন আবীর মনঃক্ষুণ্ণ। কারণ ভেঙ্কটেশ ফিল্মসের সঙ্গে আবীরের সম্পর্ক সম্প্রতি অনেক ওঠা-পড়ার মধ্য দিয়ে গিয়েছে। আবীরের কেরিয়ার যে উচ্চতায় পৌঁছেছে, তাতে কোনও ছবিতে অতিথি শিল্পী হিসেবে কাজ করার কথা নয় তাঁর। কিন্তু সৃজিত মুখোপাধ্যায় এবং শ্রীকান্ত মোহতার অনুরোধে আবীর রাজি হন ছবিটি করতে। তার পরে অবশ্য অনেক জল বয়ে গিয়েছে... অভিনেতার হাতে এই মুহূর্তে চারটি ছবি। সব ক’টিই এসভিএফ ক্যাম্পের বাইরে। তাঁকে ‘অতিথি’ থেকে ‘ঘরের ছেলে’ করার করার জন্য সংস্থা এখন তৎপর।

পরিস্থিতি সামাল দিতে সৃজিত নেমেছিলেন আসরে। ‘মাখন লাগানো’ টুইটও করেছিলেন। কিন্তু আবীরের ‘হোস্ট’ এত সহজে রণে ভঙ্গ দিতে নারাজ। পরমব্রত ছবির নতুন গান পোস্ট করে লেখেন, ‘ডাল ভাত, বিরিয়ানি, তার আলু তো বুঝলাম, এটা হল মাংসটা...’ তাঁর আর একটি পোস্ট, ‘কিছু ব্যাটসম্যান স্লেজিংকে পাত্তা দেয় না... তাঁরা জানে কী ভাবে ব্যাট করতে হয়’— এটিও কম ইঙ্গিতপূর্ণ নয়।

মিমের রাজনীতি ছবিটিকে কতটা মাইলেজ দেবে, তা বক্স অফিস বলবে। কিন্তু এর ফলে অভ্যন্তরীণ সমীকরণ কি খানিকটা নড়বড়ে হয়ে গেল?

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE