• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বাঙালির নস্টালজিয়া উস্কে দিয়ে আবার বড় পর্দায় ফিরছে ‘অপু’

arjun chakrabarty
অভিনেতা অর্জুন চক্রবর্তী।

Advertisement

বাঙালির নস্টালজিয়ায় ওতপ্রোত ভাবে জড়িয়ে রয়েছে অপু-দুর্গা। বৃষ্টির বিকেলে ভিজতে ভিজতে ভাই-বোনের ‘নেবুর পাতায় করমচা’ ছড়া অথবা অসুস্থ দুর্গার সেই করুণ আকুতি, ‘অপু, সেরে উঠলে আমায় একদিন রেলগাড়ি দেখাবি?’— এসব ভুলবার নয়। কিংবা ধরুন, ‘অপুর সংসার’–এ সৌমিত্র-শর্মিলার সেই অনবদ্য রসায়ন! সদ্য বিয়ে হয়ে আসা অপর্ণা স্বামীর সিগারেটের প্যাকেটে লিখে রেখেছে, ‘খাবার পরে, একটা করে। কথা দিয়েছ!’— বাঙালির মননে আজও টাটকা। সেই মিষ্টি প্রেমের আখ্যান অনায়াসেই হার মানাবে হালফিলের মুচমুচে লাভ স্টোরিকেও।

মাঝে কেটেছে ষাটটি বছর। কিন্তু বিভূতিভূষণের এই ‘ত্রিলজি’বাঙালির মনে‘কাল্ট’ হয়েই রয়ে গিয়েছে আজীবন। সেই নস্টালজিয়াকে উস্কে দিতেই আবারও বড় পর্দায় ফিরছে ‘অপু’।

আরও পড়ুন:মুভি রিভিউ ‘সামসারা’: রহস্যের জট ছাড়াতে ছাড়াতে জীবনের সন্ধান

 

আরও পড়ুন:সঞ্জয়ের সঙ্গে আমার ব্যক্তিগত কোনও সমস্যা নেই: ঋতুপর্ণা

 

 

সিনেমার নাম ‘অভিযাত্রিক’। অপুর চরিত্রে রয়েছেন অভিনেতা অর্জুন চক্রবর্তী। পরিচালনার দায়িত্বে শুভ্রজিৎ মিত্র। প্রযোজনার গুরুভার তুলে নিয়েছেন গৌরাঙ্গ জালান। ভারতের বিভিন্ন জায়গায় সিনেমাটির শুটিং হবে বলে জানা গিয়েছে। পুরনো স্বাদ ধরে রাখতে সাদা-কালোতেই শ্যুট করা হবে পুরো ছবিটি, এমনটাই জানাচ্ছে প্রযোজনা সংস্থা। ১৯৫৯-এর পটভূমিকায় ঠিক যেখানে ‘অপুর সংসার’ শেষ হচ্ছে, সেখান থেকেই গল্প বলবে ‘অভিযাত্রিক’। গল্পের কেন্দ্রীয় চরিত্র অপূর্ব কুমার রায় ওরফে অপু ও তাঁর ছয় বছরের ছেলে কাজলের মধ্যেকার সম্পর্কের নানা না বলা গল্পই ফিরে আসতে চলেছে এই ছবির হাত ধরে।

 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন