Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৬ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

বিলেতে নাজেহাল

প্রযোজকের চিন্তা এখন ফেরার টিকিট

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৫ জুন ২০১৭ ০৫:৩১
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

রোগী ‘মৃত’ ঘোষণা হয়ে গিয়েছে আগেই। তবু সৎকারের ঝকমারি মালুম হচ্ছে হাড়ে হাড়ে।

এমনই দশা ব্রিটেনে শ্যুটিং পণ্ড হওয়া বাংলা ছবি ‘চালবাজ’-এর প্রযোজক-গোষ্ঠীর অন্যতম কর্ণধার হিমাংশু ধানুকার। টালিগঞ্জে কলাকুশলীদের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ‘ফেডারেশন অব সিনে টেকনিশিয়ান্স অ্যান্ড ওয়ার্কার্স অব ইস্টার্ন ইন্ডিয়া’-র ফতোয়ায় কলাকুশলীরা বিলেতে গিয়েও কাজ বন্ধ করে বসে ছিলেন। এখন বিলেতে পড়ে থাকা সেই টেকনিশিয়ান ও অভিনেতাদের কলকাতায় ফেরাতে হিমশিম খাচ্ছেন হিমাংশু। শনিবারটা তাঁর কেটেছে বিমানের টিকিট জোগাড়ের হয়রানির মধ্যে।

ইদের মরসুমে এখন টিকিটের তুমুল চাহিদা। ওই ইউনিটের যাঁরা ব্রিটেনে গিয়েছিলেন, তাঁদের ‘রিটার্ন টিকিট’ ছিল জুলাইয়ের। তা এগোনো দুঃসাধ্য। এই অবস্থায় এক পিঠের ফিরতি টিকিট কাটা হচ্ছে বাড়তি খরচে। ১২ জন টেকনিশিয়ানের এ দিন স্থানীয় সময় রাত সাড়ে ন’টায় (ভারতীয় সময় রাত দু’টো) এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান ধরার কথা।

Advertisement

বিলেতে গিয়েছিল মোট ৩৭ জনের ইউনিট। প্রয়োজকদের তরফে হিমাংশুর বাবা অশোক ধানুকা এ দিন বলেন, ‘‘বহু কষ্টে এমিরেটসের বিমানে কিছু টিকিট মিলেছে। তাতে ২৬ জুন (সোমবার) দুবাই হয়ে বেশ কয়েক জন ফিরবেন।’’ ব্রিটেনের প্লিমেথ থেকে হিমাংশু জানিয়েছেন, ছবির নায়িকা শুভশ্রী সোমবার রাতের উড়ান ধরবেন। আর নায়ক শাকিব খানের রবিবার রাতের উড়ানে ঢাকা ফেরার কথা। বাকিদের ফেরার দিন অনিশ্চিত।

ধানুকাদের দাবি, টিকিটের পিছনেই বাড়তি ১৩-১৪ লক্ষ টাকা খেসারত দিতে হচ্ছে। মোট ক্ষতির বহর এখনও হিসেব হয়নি। অশোক বলেন, ‘‘কম-বেশি সাড়ে চার কোটি টাকার ছবির বেশির ভাগটাই বিলেতে শ্যুট করার ছিল। বিদেশে শ্যুটিংয়ের খরচ ছিল আড়াই কোটি মতো। হোটেলের খরচ-টরচ আগেই পকেট থেকে বেরিয়ে যায়। তার কতটা ফেরত আসবে বোঝা যাচ্ছে না।’’ ইদানীং বেশির ভাগ বাংলা ছবি যেখানে খরচই তুলতে পারে না, সেখানে এই বাড়তি বোঝা প্রয়োজকের পক্ষে মর্মান্তিক বলে অনেকেই মানছেন।

ফেডারেশনের সভাপতি তথা রাজ্যের মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের ভাই স্বরূপ বিশ্বাস এ দিন ফোন ধরেননি। ধানুকারা নিয়ম-মাফিক ১৯ জন কলাকুশলী নিয়ে যাননি বলে এই পদক্ষেপ করা হয়েছে বলে ফেডারেশনের দাবি। এই অভিযোগ মানছেন না অশোক-হিমাংশু। তবে সাংসদ-নায়ক দেব থেকে শুরু করে টলিউডের অনেকেই মনে করেন, প্রযোজক নিয়ম ভাঙলে পরে শাস্তিমূলক পদক্ষেপ করা যেত। কিন্তু কাজ বন্ধ করা ঠিক হয়নি। অশোকের কথায়, ‘‘বছরে ছবি করে টেকনিশিয়ানদের তিন কোটি টাকা দিই। চারটি করে ছবি করি। যা শিক্ষা হল, তাতে পরে কী করব, ভাবতে হবে!’’ তাঁদের ডোবানোর পিছনে ইন্ডাস্ট্রির প্রভাবশালী কোনও চক্র সক্রিয় বলেও আশঙ্কা অশোকের।



Tags:
Tollywood Dev Chalbaaz Subhashree Gangulyফেডারেশন অব সিনে টেকনিশিয়ান্স অ্যান্ড ওয়ার্কার্স অব ইস্টার্ন ইন্ডিয়াদেবচালবাজ

আরও পড়ুন

Advertisement