Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৪ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied

বিনোদন

দেউলিয়া হয়েও কামব্যাক করেছেন যে বলি তারকারা

০৮ মার্চ ২০১৮ ১৭:৫৯
ঋণখেলাপির গেরোয় সম্প্রতি দেউলিয়া ঘোষণা করা হয়েছে ছ’বারের গ্র্যান্ডস্ল্যাম জয়ী টেনিস তারকা বরিস বেকারকে। জানেন কী, বলিউডের একাধিক তারকা একসময় ঋণখেলাপির জালে জড়িয়েও দুর্দান্ত কামব্যাক করেছেন। দেউলিয়া হয়েও বেঁচে গিয়েছেন এমন তারকার নাম জেনে নেওয়া যাক গ্যালারির পাতায়।

অমিতাভ বচ্চন: বলিউডের শাহেনশাও এক সময় গদিচ্যুত হয়েছিলেন। ২০০০ সাল থেকে আর্থিক অবস্থার অবনতি হয় অমিতাভের। তাঁর স্বপ্নের প্রতিষ্ঠান ‘এবিসিএল’ ৯০ কোটি টাকা দেনার দায় দেউলিয়া ঘোষিত হয়েছিল। সর্বস্বান্ত হয়ে নিজের বাড়িও বন্ধক রাখতে বাধ্য হয়েছিলেন অমিতাভ। কিন্তু, পরে ‘কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’ দিয়ে দুর্দান্ত কামব্যাক করেন তিনি।
Advertisement
শাহরুখ খান:  তিনি বলিউড বাদশা। তবে তাঁকেও এক সময় সর্বস্বান্ত হতে হয়েছিল।  তাঁর প্রযোজনায় প্রায় ১৫০ কোটি বাজেটের ছবি ‘রা ওয়ান’ বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ার পর সর্বস্বান্ত হয়ে যান বলি বাদশা। তবে দমে যাননি। পরবর্তী কালে অন্যান্য ছবি থেকে সেই ঘাটতি পূরণ করেন শাহরুখ।

জ্যাকি শ্রফ:  নিজের প্রডাকশন হাউসে বড়সড় লোকসানের মুখোমুখি হন জ্যাকি শ্রফ। ২০০৮ সালে তাঁর আর্থিক অবস্থার এতটাই অবনতি হয় যে প্রযোজক সাজিদ নাদিয়াওয়ালার থেকে বড় অঙ্কের টাকা ধার করেন তিনি। পরে সেই ধারও শোধ করতে পারছিলেন না জ্যাকি। সলমন খান তাঁকে এই অবস্থা থেকে উদ্ধার করেন।
Advertisement
প্রীতি জিন্টা: বড় পর্দা থেকে দীর্ঘদিনের বিরতি নিয়ে ‘ইশক ইন প্যারিস’ সিনেমা দিয়ে কামব্যাক করেন প্রীতি। কিন্তু, বক্স-অফিসে সিনেমাটি বড়সড় ধাক্কা খায়। শোনা গিয়েছিল, নিজের প্রোডাকশন হাউসের কর্মীদের বেতন দিতেও পারেননি প্রীতি। পরে, সলমন খানের সহায়তায় এই বিপদ কাটিয়ে ওঠেন প্রীতি।

গোবিন্দ: এক সময় চূড়ান্ত আর্থিক দুর্দশার মুখোমুখি হয়েছিলেন গোবিন্দ। শোনা যায়, দেনার দায়ে প্রায় দেউলিয়া অবস্থা হয়েছিল তাঁর। পরবর্তী কালে সলমন খানের সঙ্গে ‘পার্টনার’ ছবি দিয়ে কামব্যাক করেন তারকা। তাঁকে এই অবস্থা থেকে উদ্ধার করতে সলমনেরও বিশেষ ভূমিকা ছিল বলে শোনা যায়।