• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ভাগ্নীর বিয়েতে হবু বৌমা-কে সামনে আনলেন সুদীপা

main
হবু বৌমা'র সঙ্গে সুদীপা। ছবি- ফেসবুক।

সানাই বাজব বাজব করছে! বড় ছেলে প্রযোজক। হবু বউমা অভিনেত্রী। সব ঠিক থাকলে আগামী বছর ‘শাশুড়ি’ হতে চলেছেন সুদীপা চট্টোপাধ্যায়।

লকডাউনের গেরো পেরিয়ে বহু দিন পরে আনন্দের হাট চট্টোপাধ্যায় পরিবারে। উপলক্ষ্য, ভাগ্নী পুপাইয়ের বিয়ে। শহরের পাঁচতারা হোটেলে  সরকারি নির্দেশিকা মেনে মাত্র ৫০ জন অতিথি নিয়ে গায়ে হলুদ থেকে বিয়ে, বাসর, বউ ভাত। সমস্ত ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন সুদীপা। তখনই সামনে এনেছেন ‘বউমা’ হিন্দোলা চক্রবর্তীকে।

হিন্দোলার ফেসবুক বলছে,  ছাত্রী ছিলেন অ্যাসেম্বলি অফ গড চার্চের। পরে কলকাতা বিশ্ব বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন তিনি। ২০১২-য় অভিনয় সূত্রে পাড়ি জমান মুম্বইয়ে।

খুব শিগগিরিই শাশুড়ি হচ্ছেন? কনগ্র্যাচুলেশন জানাতেই হাঁ হাঁ করে উঠলেন সুদীপা, ‘‘এই না না খুব শিগগিরি নয়! একটু সময় লাগবে।’’ ছেলের বিয়ে কবে তাহলে? ‘‘এ বছরেই বিয়ের কথা ছিল। করোনা সব ভন্ডুল করে দিল’’ মনক্ষুণ্ণ হবু শাশুড়ি।

পরিস্থিতি একটু ঠিক হলেই আগামী বছর নভেম্বরের হালকা শীতে চার হাত এক হওয়ার সম্ভাবনা উঁকি দিচ্ছে চট্টোপাধ্যায়-চক্রবর্তী বাড়িতে, আশ্বাস সুদীপার।
 

ছেলে আকাশ এবং বৌমা হিন্দোলার সঙ্গে সুদীপা

হিন্দোলাকে আকাশ পছন্দ করেছেন না অগ্নি-সুদীপা? জানতে চাইতেই হবু বউমার বায়োডেটা গড়গড়িয়ে বলে দিলেন সুদীপা, হিন্দোলা ৫-৬ বছরের পুরনো বান্ধবী আকাশের। তারপর প্রেম। ঝুলিতে একটি তেলুগু ছবি আর পাঞ্জাবি মিউজিক ভিডিয়ো রয়েছে। করোনার সময় কলকাতায় এসে আটকে গেছে। আর মুম্বইয়ে ফেরা হয়নি। সুদীপার কথায়, ‘‘ওর মা-বাবাই আর চাইছেন না ও ফিরে যাক। ওখানে ও জ্যাঠতুতো দিদির বাড়িতে থাকত। কিন্তু একা একা এ ভাবে থাকা ওর পরিবারের পছন্দ নয়।’’

নিজের পছন্দে বড় বউমা বাছলে সে হতো? ‘‘খুব নামী দামি ঘরের মেয়ে, প্রচণ্ড বড়লোক, উচ্চশিক্ষিত, হাই ফাই মেয়ে আমরা কখনও চাইনি। চেয়েছি বাড়ির বউ শিক্ষিত হবে, সহবৎ জানবে। আমার ভাল বন্ধু হবে। আর পুজোর সময় হাতে হাতে কাজে সাহায্য করবে। অতিথি আপ্যায়নে পটু হবে’’, জানালেন সুদীপা।
 

আকাশ-হিন্দোলা 

এগুলো হিন্দোলার মধ্যে আছে? হিন্দোলা খুব মিশুকে। সম্পর্ক ধরে রাখতে জানে। সুদীপা বউদির বাবার বাড়ির লোকেদেরও খোঁজখবর নেয়। ‘‘প্রথম প্রথম মনে হয়েছিল বোধহয় সবটাই ওপর ওপর। কিন্তু পাঁচ বছর ধরে দেখছি মেয়েটাই এত আন্তরিক’’ দরাজ গলায় সার্টিফিকেট হবু  শাশুড়ির। জানাতে ভুললেন না, অগ্নির কাছে আকাশের বউ মেয়ের প্রতিরূপ। তাই ভীষণ লেগ পুলিং করেন বউমার। এবং সেটা বেশ সুন্দর করে ট্যাকেল করেন হিন্দোলা। একটুও না রেগে।

বিয়ের পর অভিনয় করবেন হিন্দোলা? উত্তর এল, "এটা আকাশের ব্যাপার।" তাঁদের কোনও আপত্তি নেই।

কী বলছেন আকাশ? টেনশনে টানটান না আনন্দে উড়ছেন? ‘‘কোনও কিছুই হচ্ছে না ওর। হলে সমস্যা তো! কাজ করতে হবে। আকাশ এ সবে নেই। যা বলা হবে মুখ বুজে করে যাবে বুদ্ধিমানের মতো।’’
 

 

 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন