Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ই-পেপার

Janhvi Kapoor: একে অপরের জীবনের খুঁটিনাটির খোঁজ রাখতাম না, সৎ দাদা অর্জুনকে নিয়ে মুখ খুললেন জাহ্নবী

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০১ অগস্ট ২০২১ ১৩:০৭
অর্জুন কপূর এবং জাহ্নবী কপূর

অর্জুন কপূর এবং জাহ্নবী কপূর

এর আগে একাধিক বার অভিনেতা অর্জুন কপূর নিজের দুই সৎ বোন জাহ্নবী কপূর এবং খুশি কপূরের সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের সমীকরণ নিয়ে কথা বলেছেন প্রকাশ্যে। অর্জুন বলেছিলেন, ‘‘যদি বলি, আমরা একটাই পরিবার, সুখী পরিবার, তা হলে মিথ্যে বলা হবে। আমরা বিচ্ছিন্ন পরিবার। যারা একসঙ্গে বসবাস করার চেষ্টা চালাচ্ছি। আমরা একে অপরকে বোঝার চেষ্টা করছি। এক সঙ্গে থাকলে ভাল সময় কাটাই। তাও আমরা এক হয়ে উঠিনি।’’ যদিও তিনি জানিয়েছিলেন, সৎ মা শ্রীদেবীর প্রয়াণের পরে তিনি ও তাঁর সহোদরা অংশুলা সৎ বোনদের কাছাকাছি আসেন।

সম্প্রতি মুম্বইয়ের একটি পত্রিকার প্রচ্ছদে অর্জুনের সঙ্গে জাহ্নবীর একটি ছবি প্রকাশিত হয়েছে। সেই সাক্ষাৎকারে জাহ্নবী প্রথম বার তাঁর বাবার অন্য পরিবার নিয়ে মুখ খুললেন। সঙ্গে ছিলেন অর্জুনও।

অর্জুন বললেন, ‘‘আগে যখন আমাদের দেখা হত, বিশেষ কথা হত না। নীরবতা জাঁকিয়ে বসত। যেটুকু আলাপচারিতা না হলেই নয়, সেটুকুই হত।’’

Advertisement

জাহ্নবী তার উত্তরে বলেন, "আমি আমার পরিবারের কাছ থেকে অনেক কিছু শিখেছি। আমাদের বাবা এক, আমাদের রক্তও এক। আর এই একটা জিনিস আমাদের দু'জনের কাছ থেকে কেউ কেড়ে নিতে পারবে না।’’ জাহ্নবীর কথায় জানা গেল, তাঁরা একে অপরের খোঁজখবর রাখতেন না খুব একটা। খুব প্রয়োজন না পড়লে একে অপরের বাড়িও যেতেন না আগে। কিন্তু কোথাও যেন আত্মিক যোগাযোগ ছিল। জাহ্নবী বললেন, ‘‘মনে মনে জানতাম, আমি যা-ই করি না কেন, অর্জুন ভাইয়া আর অংশুলা দিদি আমার পাশে দাঁড়াবে। এমন এক নিরাপত্তাবোধ কাজ করত মনের মধ্যে।’’

প্রযোজক বনি কপূর ও তাঁর প্রথম পক্ষের স্ত্রী মোনা কপূরের দুই সন্তান, অর্জুন এবং অংশুলা। কিন্তু বনি-মোনার বিচ্ছেদ ঘটে। তার পরে ১৯৯৬ সালে শ্রীদেবীকে বিয়ে করেন বনি। অভিনেতা অর্জুন জানিয়েছিলেন, মাকে ছেড়ে তাঁর বাবা অন্য কাউকে বিয়ে করেছেন, এই ঘটনাটি ছোটবেলা থেকেই মেনে নিতে পারেননি তিনি। মানসিক ভাবে বিধ্বস্ত হয়ে পড়েছিলেন তিনি।

কিন্তু এ বারে জাহ্নবী তাঁদের পরিবারের সমীকরণ নিয়ে মুখ খুললেন।

আরও পড়ুন

More from My Kolkata
Advertisement