Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Khukumoni Home Delivery: প্রেমে আর স্বাদে মাখামাখি শাপলার টক খাওয়াতে আসছে খুকুমণি

১ নভেম্বর সোম থেকে রবি রোজ দেখা যাবে সন্ধে সাড়ে ছটায়, ধারাবাহিক ‘দেশের মাটি’-র সময়ে

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৬ অক্টোবর ২০২১ ২০:২০
Save
Something isn't right! Please refresh.
স্টার জলসার নতুন ধারাবাহিক ‘খুকুমণি হোম ডেলিভারি’

স্টার জলসার নতুন ধারাবাহিক ‘খুকুমণি হোম ডেলিভারি’

Popup Close

‘আহা রে’, ‘আহারে মন’ কিংবা ‘রেনবো জেলি-র মতো ছবি পেটপুজো আর প্রেম, এই দুই অস্ত্রেই ঘায়েল করেছিল বড় পর্দার দর্শকদের। সেই অস্ত্রে শান দিয়ে বাঙালির অন্দরমহলে ঢুকে পড়তে চলেছে খুকুমণি। তার তালিকায় চিংড়ির ঘণ্ট থেকে শাপলার টক! সেই দিয়ে সে বশ করবে বিহানকে। ছোট পর্দার দর্শকদেরও? মঙ্গলবার তারই চুলচেরা বিশ্লেষণে মুখোমুখি ‘খুকুমণি’ ওরফে দীপান্বিতা রক্ষিত, ‘বিহান’ ওরফে রাহুল মজুমদার। ছিলেন কাঞ্চনা মৈত্র, গৌরব, বিপ্লব বন্দ্যোপাধ্যায়, ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়, সোমা দে, দীপঙ্কর দে-র মতো দুই প্রজন্মের তারকা, পরিচালক প্রসেনজিৎ রায়। আড্ডার আয়োজনে স্টার জলসার নতুন ধারাবাহিক ‘খুকুমণি হোম ডেলিভারি’। ১ নভেম্বর থেকে সোম থেকে রবি রোজ দেখা যাবে সন্ধে সাড়ে ছটায়। ধারাবাহিক ‘দেশের মাটি’-র সময়ে।

আড্ডা থেকে কী উঠে এল? ভাল রান্না যেমন বাঙালি চাখতে ছাড়তে না তেমনি ভাল গল্পও দর্শক দেখতে ছাড়ে না। এই বিশ্বাস থেকেই ব্লুজ প্রযোজনা সংস্থার কর্ণধার স্নেহাশিস চক্রবর্তী ছোট পর্দায় প্রথম নিয়ে আসছেন এই ‘ফুড ফ্যান্টাসি’ ধারাবাহিক। মা-বাবা হারা খুকুমণির মতো মেয়ে যেখানে ঝাঁঝালো রান্নার পাশাপাশি ধারালো কথায় কাবু করতে প্রস্তুত। অন্যায়ের প্রতিবাদ করতেও সে পিছপা হয় না কখনও। সাংবাদিক বৈঠকে সে কথা জানাতে গিয়ে দীপান্বিতা ওরফে ‘খুকুমণি’ ফাঁস করেই ফেললেন, ‘‘বাড়িতে ঝগড়াও করি কম গলায়। চরিত্রের খাতিরে সারাক্ষণ গলা তুলে কথা বলতে হচ্ছে। কণ্ঠস্বর ভেঙে খানখান!’’

Advertisement

স্নেহাশিসের প্রতিটি ধারাবাহিকের নারী চরিত্রের মতোই ‘খুকুমণি’ও প্রতিবাদী। এর আগে তিনি ছিলেন ‘সাঁঝের বাতি’ ধারাবাহিকে ‘চুমকি’ চরিত্রে। যে ছিল খলনায়িকা। ‘খুকুমণি’ হয়ে সেই তিনিই নায়িকা। মন তাই ভীষণ খুশি দীপান্বিতার। তাঁর পর্দার নায়ক ‘বিহান’ কেমন? সেটাও আর অজানা নেই লাইভ সাক্ষাৎকারের সৌজন্যে। ‘বিহান’ ওরফে রাহুল জানিয়েছেন, পর্দায় মা-হারা ছেলে সে। ভাল সেতার বাজাতে জানে। কিন্তু পান থেকে চুন খসলেই মেজাজ সপ্তমে। এক মাত্র তাকে বশ করা যায় ভাল-মন্দ আহারে। তার জন্যই তাদের বাড়িতে কদর খুকুমণির। রাহুলকে শেষ দেখা গিয়েছিল ধারাবাহিক ‘ভাগ্যলক্ষ্মী’তে। ‘বিহান’-এর সৎ মা কাঞ্চনা। বাবা বিপ্লব, কাকা ভাস্কর। দাদু দীপঙ্কর, পিসি দিদা সোমা দে। কথায় কথায় জানিয়েছেন, খুব অল্প সময়ে নতুন চরিত্রের ডাক পেয়েছেন। এ দিকে তিনি সেতার বাদক। প্রশিক্ষণের সময়ই পাননি। তাঁর পাড়ায় কয়েক জন সেতার বাজিয়ে আছেন। তাঁদের থেকেই আপাতত সেতার ধরা এবং বাজানোর ভঙ্গি রপ্ত করেছেন।

জিভে জল আনা পদ দেখানো হবে এই ধারাবাহিকে। রান্নার গপ্পোও থাকবে। বাস্তবে রাঁধতে জানেন ‘খুকুমণি? ‘খুকুমণি’-র ভঙ্গিতেই গড়গড়িয়ে বললেন দীপান্বিতা, ‘‘যে কোনও রেসিপি পেলেই রেঁধে দেব। রান্না আমার অবসর বিনোদন। এখন কেবল বিরিয়ানিটাই যা রাঁধিনি।’’ আর খাওয়াদাওয়া? পিৎজা থেকে ফুচকা হয়ে চিংড়ির মালাইকারি এবং বিরিয়ানি, সব রকমের খাবার রসিয়ে খান তিনি। সাফ জবাব ‘খুকুমণি’র।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement