‘বাবুমশাই’ যে সত্যিই ‘বন্দুকবাজ’ তা এক টুইটেই বুঝিয়ে দিয়েছেন। কেননা, তাঁর একটি টুইট ঘিরেই এই মুহূর্তে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া। তিনি নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকি।

কী লিখেছেন নওয়াজ, যা নিয়ে এত আলোচনা?

গত ১৭ জুলাই নওয়াজ তাঁর টুইটার হ্যান্ডলে লেখেন, “আমি কালো আর দেখতেও ভাল নই। সেটা মনে করিয়ে দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ!”

কিন্তু, হঠাত্ কেন এমন কথা লিখতে গেলেন কেন তিনি?

আসলে ঘটনার সূত্রপাত তাঁর সাম্প্রতিক ছবি ‘বাবুমশাই বন্দুকবাজ’ ছবির কাস্টিং ডিরেক্টর সঞ্জয় চৌহানের একটি মন্তব্যে। সঞ্জয় সম্প্রতি বলেছেন, ছবিতে নওয়াজ থাকায় তিনি কোনও ‘ফর্সা’ বা ‘হ্যান্ডসাম’ অভিনেতাকে কাস্ট করতে পারেননি। তার পরেই নাম না করলেও নওয়াজের এই টুইট যে সঞ্জয়ের মন্তব্যেরই জবাব, তা স্পষ্ট অনেকের কাছেই।

বলিউডে একস্ট্রা বা জুনিয়র আর্টিস্ট হিসেবে কেরিয়ার শুরু করলেও আজ তিনি ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম সফল অভিনেতা। ‘রইস’-এর কড়া পুলিশ অফিসার হোক বা অপ্রতিরুদ্ধ দশরথ মাঝির চরিত্র, সবেতেই দর্শক, সমালোচকদের মন জয় করেছেন নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকি। কিন্তু, আজও নিজের সাফল্যকে বড় করে দেখতে নারাজ তিনি। সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে নওয়াজ জানান, কোনও দিনই তিনি নিজের লুক বা ত্বকের রঙের প্রতি নজর দেননি। বরং গুরুত্ব দিয়েছেন ‘মেথডিক্যাল’ অভিনয়ে। এর পরেই তাঁর সংযোজন, “কিন্তু কোনও কাস্টিং ডিরেক্টর যদি আমার জন্য কোনও ফর্সা বা ‘হ্যান্ডসাম’ অভিনেতাকে কাস্ট করতে না পারেন, তো সেটা তাঁর সমস্যা।”

আরও পড়ুন: এগিয়ে আনা হচ্ছে সঞ্জয় দত্তের বায়োপিকের মুক্তির দিন?

যদিও তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে পিটিআইকে সঞ্জয় চৌহান বলেন, “আমার বক্তব্যকে বিকৃত করা হয়েছে। আমি বলেছিলাম, এই ছবিতে আমার নওয়াজের মতো অভিনেতারই প্রয়োজন। আমি জানি না কোথা থেকে এই ‘ফেয়ার অ্যান্ড হ্যান্ডসাম’ কথাটা জুড়ে দেওয়া হল। এ কথা আমি বলিনি।”