Advertisement
২২ জুলাই ২০২৪
Srijit Mukherjee

Srijit Mukherjee: পিছিয়ে গেল সৃজিতের ‘X= প্রেম’-এর মুক্তি, কারণ জানাতে মুখ খুললেন পরিচালক

সোমবার বিনোদন দুনিয়ার সব চেয়ে বড় খবর! ময়দান থেকে সরে এলেন পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়। পিছিয়ে গেল ‘এক্স ইক্যুয়ালটু প্রেম’!-এর মুক্তি। পয়লা বৈশাখেই মুক্তি পেয়েছিল সৃজিতের প্রেমের ছবি ‘এক্স ইকুয়াল টু প্রেম’-এর টিজার। একের পর এক গানও প্রকাশিত হয়েছে এই ছবির। 

‘X=প্রেম’ ছবির একটি দৃশ্য।

‘X=প্রেম’ ছবির একটি দৃশ্য।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৫ এপ্রিল ২০২২ ১৬:০৭
Share: Save:

কথা ছিল প্রসেনজিৎ, সৃজিত, নন্দিতা- শিবপ্রসাদ আসছেন একজোটে! একের পর এক ঘোষণা বলেছে, মাস জুড়ে প্রেক্ষাগৃহে দাপট দেখাবে নানা স্বাদের তারকাখচিত বাংলা ছবি। তালিকায় মিমি চক্রবর্তী, সোহম চক্রবর্তী, সৃজিত মুখোপাধ্যায়, শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়, অনীক দত্ত, যশ দাশগুপ্ত, এনা সাহা, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়— কে নেই! টলিউডে নিজেদের মধ্যেই টক্কর?

সেই প্রশ্নের মধ্যেই সোমবার বিনোদন দুনিয়ার সব চেয়ে বড় খবর! প্রতিযোগিতার ময়দান থেকে সরে এলেন পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়। পিছিয়ে গেল ‘এক্স ইক্যুয়ালটু প্রেম’!-এর মুক্তি।

পয়লা বৈশাখেই মুক্তি পেয়েছিল সৃজিতের প্রেমের ছবি ‘এক্স ইকুয়াল টু প্রেম’-এর টিজার। যার কাহিনি প্রশ্ন তুলবে, অতীত প্রেম কি এত সহজে ভোলা যায়? অর্ণব আর অদিতি আগের প্রজন্মের। কলেজে অর্ণবের জুনিয়র জয়ী। একটা সময়ে দু’জনের মধ্যেই হাবুডুবু প্রেম ছিল। অথচ পরে জয়ীয় জীবনে আসে খিলাৎ। এই চার জনকে ঘিরেই ঘটনাপ্রবাহের ওলোটপালট। একের পর এক গানও প্রকাশিত হয়েছে এই ছবির। তা হলে কী এমন হল যে ছবি মুক্তি পিছিয়ে দিতে হল?

আনন্দবাজার অনলাইনের প্রশ্নের জবাবে পরিচালকের ব্যাখ্যা— ‘‘ছবির আবহসঙ্গীত আর ভিএফএক্সের কাজ শেষ হয়নি। সে কারণেই পিছিয়ে দিতে হল ছবির মুক্তি।’’

এ দিকে, এক সঙ্গে এত বাংলা ছবি মুক্তি নিয়ে আনন্দবাজার অনলাইনের কাছে আগেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন প্রেক্ষাগৃহের মালিকেরা। অজন্তা প্রেক্ষাগৃহের মালিক শতদীপ সাহা কিন্তু অনেক ভেবেও এমন কোনও সম্ভাবনাই দেখতে পাচ্ছেন না। বিরক্ত শতদীপের পাল্টা প্রশ্ন, ‘‘এটা বাণিজ্য না নোংরামো? ছবি মুক্তির নামে অসুস্থ প্রতিযোগিতা! পরিচালকেরা মুক্তির আগে এক বারও ভাবছেন না, আমরা প্রেক্ষাগৃহ দেব কোথা থেকে! কারণ, ছবির সংখ্যা বাড়লেও হলের সংখ্যা তো বাড়ছে না! কোনও ছবি জনপ্রিয় হলেও তাকে হল থেকে নামিয়ে নিতে হবে। পরের ছবিকে জায়গা ছাড়ার জন্য।’’ শতদীপের আরও যুক্তি, এর সঙ্গে রয়েছে হিন্দি, ইংরেজি, দক্ষিণী ছবি। কাকে ছেড়ে কাকে জায়গা দেবেন হল মালিকেরা! অজন্তা প্রেক্ষাগৃহের মালিকের কথায়, প্রতি সপ্তাহে একটি বা দু’টি করে বাংলা ছবি মুক্তি পেলে দর্শকও বিভ্রান্ত হন না। সেটাও হওয়ার নয়। শতদীপের হিসেবে, ‘কলকাতার হ্যারি’, ‘মিনি’, ‘এক্স ইক্যুয়ালটু প্রেম’, ‘অপরাজিত’, ‘বেলাশুরু’, ‘জালবন্দি’, ‘আয় খুকু আয়’, ‘শবর’, ‘চিনেবাদাম’-সহ মে মাসে মুক্তি পেতে চলেছে আট থেকে দশটি বাংলা ছবি! আর সে কারণেই ঘুরপাক খাচ্ছে একটা প্রশ্ন। বাণিজ্যের কথা মাথায় রেখেই কি তবে সরে দাঁড়ালেন প্রযোজক এসভিএফ এবং পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়?

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Srijit Mukherjee X=Prem Postponed
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE