ঠিক ১০০ বছর আগে শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় ‘দত্তা’ লিখেছিলেন। লেখকের সেই সৃষ্টির উদ্‌যাপনেই উপন্যাসটি নিয়ে ফের সিনেমা তৈরি হচ্ছে। এ বার মুখ্য ভূমিকায় ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। পরিচালকের আসনে নির্মল চক্রবর্তী। সদ্য শান্তিনিকেতনে হল এই ছবির কিছু অংশের শুটিং।

১৯৭৬ সালে সুচিত্রা সেনকে নিয়ে অজয় কর ‘দত্তা’ করেছিলেন। সেখানে ছিলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, শমিত ভঞ্জ। নির্মলের ছবিতে ঋতুপর্ণা ছাড়াও রয়েছেন জয় সেনগুপ্ত এবং ফিরদৌস। ঋতুপর্ণা বিজয়ার চরিত্রে। জয় করছেন নরেনের চরিত্রটি, ফিরদৌস রয়েছেন বিলাসের ভূমিকায়। রাসবিহারীর চরিত্রে বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী। এ ছাড়াও একটি চরিত্রে রয়েছেন দেবলীনা কুমার।  

ঋতুপর্ণা আগেই বলেছিলেন, ‘‘নির্মলদা চাইছিলেন সাহিত্যধর্মী কিছু করতে। ‘দত্তা’র ১০০ বছরও হল। ওই সময়ের প্রেক্ষিতে বলিষ্ঠ, প্রতিবাদী নারীচরিত্র বেশ চমকপ্রদ। আমি যে ধরনের চরিত্র করতে পছন্দ করি, ‘দত্তা’ ঠিক তেমনই। তা ছাড়া ওই চরিত্রটি এক সময়ে সুচিত্রা সেন করেছিলেন।’’

আরও পড়ুন, বুম্বাদার ডেডিকেশন আমাকে ইনসিকিওর করে দেয়, স্বীকারোক্তি ঋত্বিকের

এই ছবির চিত্রনাট্য লিখেছেন সুমিত্র বন্দ্যোপাধ্যায়। ক্যামেরার দায়িত্বে মৃন্ময় মন্ডল। শিল্প নির্দেশনা করেছেন সম্রাট চন্দ। পোশাক পরিকল্পনা হয়েছে সাবর্ণী দাসের তত্ত্বাবধানে। নিবেদনে ঋতুপর্ণার সংস্থা ‘ভাবনা আজ ও কাল’।

(সিনেমার প্রথম ঝলক থেকে টাটকা ফিল্ম সমালোচনা - রুপোলি পর্দার বাছাই করা বাংলা খবর জানতে পড়ুন আমাদের বিনোদনের সব খবর বিভাগ।)