একটা সময়ে রুদ্রনীল ঘোষ আর তনুশ্রী চক্রবর্তীর মধ্যে সম্পর্ক ছিল। তবে সে সব বহু আগের কথা। মনোমালিন্য না থাকলেও দু’জনকে অনেক দিন এক ফ্রেমে দেখা যায়নি। তবে এ বার অভিরূপ ঘোষের ‘জ়ম্বিস্তান’ ছবিতে অভিনয় করছেন রুদ্রনীল-তনুশ্রী। আর একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে রয়েছেন রজতাভ দত্ত। 

হলিউডে অন্যতম জনপ্রিয় জ়ঁর জ়ম্বি মুভি। বলিউডে দু’-একটা কাজ হলেও বাংলায় জ়ম্বি ফিল্ম একেবারেই হয়নি। অভিরূপ ‘জ়ম্বিস্তান’-এ সেই উদ্যোগটাই নিয়েছেন। পরিচালক সময়টা ফার্স্ট ফরওয়ার্ড করে দর্শককে নিয়ে গিয়ে ফেলছেন ভবিষ্যতে। মনুষ্যজাতির অস্তিত্ব বিপন্ন, এমন একটি পরিস্থিতিতে ‘জ়ম্বিস্তান’-এর চিত্রনাট্য সাজিয়েছেন তিনি। যাকে তিনি ব্ল্যাক ডে বলছেন। ছবিতে দেখানো হচ্ছে সময়টা ২০৩০। বায়ো কেমিক্যাল অস্ত্রের আঘাতে প্রায় গোটা মানবজাতি নিশ্চিহ্ন হয়ে যেতে বসেছে। সেখানে কয়েকটি মানুষের বাঁচার লড়াই চলে। তবে তাদের উদ্দেশ্য এবং পরিস্থিতি সবটাই আলাদা।

একটি এলাকায় তনুশ্রীর চরিত্রটি যেমন একমাত্র জীবিত। সে নিজে বাঁচার চেষ্টা করে এবং যে ক’জন জীবিত তাদেরও উদ্ধারের চেষ্টা করে। সেই জার্নিতেই তনুশ্রীর দেখা হয় রুদ্রনীল এবং রজতাভর চরিত্রের সঙ্গে। রুদ্রনীল ও রজতাভর চরিত্রের মধ্যেও একাধিক পরত রয়েছে। হলিউডে অজস্র জ়ম্বি মুভি তৈরি হয়েছে। সব ছবিতেই সার্ভাইভাল স্ট্র্যাটেজি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। ‘জ়ম্বিস্তান’ও তার ব্যতিক্রম নয়। তবে অন্য জ়ম্বি মুভির চেয়ে এ ছবি কতটা আলাদা, সেটাই দেখার।