Advertisement
১৯ জুলাই ২০২৪
Entertainment News

‘যুবরাজের মা যেন ওঁদের থেকে দূরে থাকে’, বিস্ফোরক যুবির বৌদি আকাঙ্খা

বিয়ে হয়ে গেল যুবরাজ সিংহ ও হেজেল কিচের। শুভেচ্ছাবার্তায় ভরে উঠল নবদম্পতির চ্যাটবক্স। কিন্তু শুভেচ্ছা দেওয়ার বদলে কিছুটা যেন সাবধানই করলেন যুবরাজের দাদা জোরাভার সিংহের প্রাক্তন স্ত্রী আকাঙ্খা শর্মা। বললেন, শ্বাশুড়ি যেন ওঁদের দু’জনের থেকে দূরে থাকে।

সংবাদ সংস্থা
শেষ আপডেট: ০২ ডিসেম্বর ২০১৬ ১২:৫৩
Share: Save:

বিয়ে হয়ে গেল যুবরাজ সিংহ ও হেজেল কিচের। শুভেচ্ছাবার্তায় ভরে উঠল নবদম্পতির চ্যাটবক্স। কিন্তু শুভেচ্ছা দেওয়ার বদলে কিছুটা যেন সাবধানই করলেন যুবরাজের দাদা জোরাভার সিংহের প্রাক্তন স্ত্রী আকাঙ্খা শর্মা। বললেন, শ্বাশুড়ি যেন ওঁদের দু’জনের থেকে দূরে থাকে।

সদ্য বিগ-বস থেকে বাদ পড়েছেন আকাঙ্খা। বিগ বসের প্ল্যাটফর্ম থেকেও একাধিকবার শ্বাশুড়ি শবনমের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছিলেন তিনি। আকাঙ্খার অভিযোগ ছিল, শবনম নাকি তাঁর ওপর শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার চালাতেন। এমনকী তাড়াতাড়ি মা হওয়ার জন্যও নাকি চাপ দিতেন শবনম। শোনা গিয়েছে, যুবরাজের বিয়ের পর শবনম নাকি যুবরাজ ও হেজেলের সঙ্গেই থাকবেন। সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে শবনমের এই সিদ্ধান্তের কথা শুনে অকাঙ্খা বলেন, “আমি প্রার্থনা করি যাতে শবনম ওঁদের থেকে দূরে থাকেন। তবে হেজেল সত্যিই ভাগ্যবান যে সে যুবরাজের মতো স্বামী পেয়েছে। যুবি সত্যি দুর্দান্ত ছেলে।”

কিন্তু কেন হঠাৎ প্রাক্তন শ্বাশুড়ির প্রতি এতটা বিরূপ আকাঙ্খা? সাক্ষাৎকারে শেয়ার করেছেন সে কথাও। এক জনৈক বাবাজির কথায় নাকি মাত্র সাত দিনের মধ্যে জোরাভারের সঙ্গে বিয়ে দেওয়া হয়েছিল আকাঙ্খার। আবার সেই বাবাজির পরামর্শেই বিবাহ-বিচ্ছেদ হয়েছিল তাঁদের। তাড়াতাড়ি মা হওয়ার জন্য বাবাজির দেওয়া কমলালেবুও তাঁকে খেতে বলেছিলেন শবনম। বাবাজিকে নাকি অন্ধের মতো বিশ্বাস করে যুবির পরিবার। আকাঙ্খার অভিযোগ, শবনম এখনও পঞ্চাশ বছর আগের দুনিয়ায় আটকে আছেন। তাঁর উচিত ২০১৬-র মতো করে জীবন কাটানো।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Hazel Keech Yuvraj Singh Akansha Sharma Sabnam
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE