×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৩ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

বিনোদন

একটি ছবিতেই রাতারাতি জনপ্রিয়, মাধুরীর ঘুম কেড়ে নেওয়া সেই ফারহিন আজ বিস্মৃত

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৮ জানুয়ারি ২০২১ ১৫:২৩
ফারহিনের জন্ম ১৯৭৩ সালে চেন্নাইয়ে। ১৯৯২ সালে তিনি ফিল্ম দুনিয়ার আসেন। খুব কম বছরই ফিল্মে ছিলেন এই সুন্দরী। তার পর আচমকাই যেন গায়েব হয়ে যান।

১৯৯২ থেকে ১৯৯৮, মাত্র এই ৬ বছরের ফিল্মি কেরিয়ারে তিনি এতটাই জনপ্রিয় হয়ে গিয়েছিলেন যে, মাধুরী দীক্ষিতের রাতের ঘুম কেড়ে নিয়েছিলেন।
Advertisement
ফারহিনের জনপ্রিয়তায় মাধুরীর ঘুম উড়ে যাওয়ার আরও একটা কারণ ছিল। ফারহিন অনেকটা মাধুরীর মতোই দেখতে ছিলেন। একই হেয়ার স্টাইল এবং প্রায় একই মুখের আদল।

ফারহিনের প্রথম ছবি ছিল ‘জান তেরে নাম’ । ফিল্মে তাঁর বিপরীতে ছিলেন রনিত রায়। ছবিটি বক্স অফিসে সাফল্য পেয়েছিল। পাশাপাশি ফারহিনকেও পছন্দ করেছিলেন দর্শক।
Advertisement
রাতারাতি ফারহিন এতটাই জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন যে, কেরিয়ারের মাত্র ৬ বছরে শাহরুখ খানের সঙ্গে ছবি করার প্রস্তাবও তিনি ফিরিয়ে দিয়েছিলেন।

অথচ রাতারাতি জনপ্রিয় হয়ে ওঠা সেই অভিনেত্রী যেন রাতারাতিই হারিয়ে গেলেন বলিউড থেকে। প্রশ্ন জাগে, কেরিয়ারের শিখরে উঠেও কেন তিনি আড়ালেই থেকে গেলেন এতগুলো বছর?

‘জান তেরে নাম’-এর পর বলিউডের পাশাপাশি কন্নড় এবং তামিল ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ আসতে শুরু করেছিল তাঁর কাছে। নিজের কেরিয়ার নিয়ে খুশি ছিলেন ফারহিন। অভিনয় নিয়ে ব্যস্ততাও চরমে উঠেছিল।

এমনকি বলিউডের সুপারহিট ছবি ‘বাজিগর’-এর অফারও তাঁকে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সে সময় দক্ষিণী ফিল্মে ব্যস্ত থাকায় তিনি শাহরুখের সঙ্গে অভিনয়ের অফার ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। এটা ছিল তাঁর কেরিয়ারের অন্যতম ভুল সিদ্ধান্ত।

তবে এটা ছাড়াও তাঁর জীবনে আরও কিছু অপেক্ষা করছিল, যা তাঁর কেরিয়ার শেষ করে দেয়। সেগুলো তাঁর ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কিছু ভুল সিদ্ধান্ত।

এক পার্টিতে ক্রিকেটার মনোজ প্রভাকরের সঙ্গে পরিচয় হয় তাঁর। মনোজ তখন বিবাহিত ছিলেন। কিন্তু তা জানা সত্ত্বেও মনোজের প্রেমে পড়েন তিনি। স্ত্রীকে ছেড়ে ফারহিনের সঙ্গে থাকতে শুরু করেন মনোজ।

জানা যায়, গোপনে নাকি দু'জনে বিয়েও করেন এবং দু'জনের সন্তানও হয়। মনোজকে বিয়ে করার পর দিল্লিতে শিফট হন ফারহিন। আর তার পর থেকে ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে এতটাই জড়িয়ে পড়েন যে, ফিল্ম থেকে তিনি বিদায় নিয়ে নেন।

এখন ফিল্ম ভুলে নিজের ব্যবসায় মন দিয়েছেন ফারহিন। বিভিন্ন বিউটি প্রোডাক্ট তৈরি করেন তিনি। ফারহিনের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে মনোজের সঙ্গে প্রথম প্রথম তাঁর স্ত্রীর গণ্ডগোলও হয়েছে অনেক।

মনোজ এবং ফারহিনের বিরুদ্ধে ফ্ল্যাট জবরদখল করে টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগও এনেছিলেন তাঁর প্রথম স্ত্রী। সে সবের ঊর্ধ্বে উঠে ফারহিনের সঙ্গেই সংসার করে চলেছেন মনোজ।

অনেক বছর পর ফের এক বার খবরের শিরোনামে আসেন ফারহিন। সেটা ছিল ২০১৯ সাল। দিল্লির একটি শপিং মলে যাওয়ার সময় ঠক ঠক গ্যাংয়ের কবলে পড়েছিলেন তিনি। তাঁর ব্যাগ ছিনিয়ে নেওয়ার সময় তাঁকে মারধর করেছিল দুষ্কৃতীরা।