Advertisement
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Uninterrupted Sleep

৫ টোটকা: রাতে আর বার বার ঘুম থেকে উঠে পড়বে না শিশু

সারা দিন সন্তানের দেখাশোনা করার পর রাতেও যদি ঠায় কোলে নিয়ে বসে থাকতে হয়, মা-বাবাদের জন্য তা চিন্তার। তবে এর সমাধান আছে।

Image of woman and child

ছবি: প্রতীকী

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৩ জুন ২০২৩ ২১:২১
Share: Save:

সদ্য মা হয়েছেন প্রিয়ঙ্কা। সন্তান হওয়ার পর বন্ধুবান্ধব, বড়রা সকলেই ভয় দেখিয়ে বলেছিলেন, ‘এই তো রাত জাগার শুরু’। সেই সময়ে খুব একটা টের না পেলেও ক'টা দিন পর থেকেই প্রিয়ঙ্কার অবস্থা খারাপ হতে শুরু করেছে। সারা দিন ধরে সদ্যোজাতর দেখাশোনা করা, বার বার খাওয়ানোর দায়িত্ব থাকেই। তার পর রাতে ঘুম পাড়াতে গিয়ে প্রাণ ওষ্ঠাগত হয়ে যাচ্ছে তাঁর।

তবে শুধু প্রিয়ঙ্কা এবং তাঁর খুদে নয়, এমন সমস্যা প্রিয়ঙ্কার মতো অনেক মায়েরই। সেই সব শিশুরা প্রিয়ঙ্কার সন্তানের চেয়ে বড় হলেও রাতে ঘুম পাড়াতে গিয়ে নাজেহাল হতে হয়। একেবারে ছোট শিশুদের মূলত খিদে পেলে বা পোশাক ভিজে গেলে থেকে ঘুম ভেঙে যেতে পারে। শারীরিক কোনও অসুবিধা থেকেও এমন সমস্যা হতে পারে। তবে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে কয়েকটি টোটকা মেনে চলার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

১) সন্তানকে পর্যাপ্ত পরিমাণে জল খাওয়ানোর অভ্যাস করুন। খুদের শরীরে যদি জলের ঘাটতি থাকে, তা ঘুমে ব্যাঘাত ঘটাতে পারে। তবে, সন্ধের পর থেকে বেশি জল খেতে দেবেন না। তা হলে রাতে বার বার প্রস্রাবের বেগ আসতে পারে। সে ক্ষেত্রে ঘুম পাড়ানো সমস্যার হয়ে উঠতে পারে।

২) সারা দিন ঘরের মধ্যে আটকে রাখলে চট করে ঘুম না-ও আসতে পারে। তার চেয়ে শিশুকে নানা রকম কসরত করতে দিন। সারা দিন দৌড়-ঝাঁপ করলে ক্লান্ত হয়ে খুদে কিন্তু তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়তে পারে।

৩) নির্দিষ্ট একটা সময়ের পর বাইরের জগতের সঙ্গে সন্তানের যোগাযোগ কমিয়ে আনতে হবে। ঘরের চড়া আলো নিভিয়ে মৃদু আলো জ্বালিয়ে রাখতে পারলে ভাল হয়।

৪) প্রতি রাতে নির্দিষ্ট সময়ে সন্তানকে ঘুম পাড়ানোর চেষ্টা করুন। মাঝরাতে খিদে পেলে হাতের কাছে দুধের ব্যবস্থা করে রাখুন। খাওয়াতে যেন বেশি সময় না লাগে। তা হলে ঘুম কেটে যেতে পারে।

৫) ঘুম পাড়াতে খুব সমস্যা হলে রাতে শিশুর সারা দেহে তেল মালিশ করতে পারেন। শরীরে যদি কোনও অস্বস্তি হয়, সে ক্ষেত্রে হালকা গরম তেলের মালিশ দারুণ কাজ করে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE