Advertisement
১৪ এপ্রিল ২০২৪
Poush Parbon 2024

পৌষ পার্বণে মেনে চলুন বিশেষ কিছু টোটকা, নতুন বছরে সংসারের উন্নতি হবেই

বাংলা পৌষ মাসের শেষ দিন এই উৎসব পালন করা হয়। এই দিন নতুন ফসল যেমন— নতুন চাল, খেজুরের গুড়, দুধ এই সকল সামগ্রী দিয়ে প্রথমে ভগবানের উদ্দেশ্যে নিবেদন করে এই উৎসব শুরু করা হয়।

Tips for Makar Shankaranti to bring prosperity in your home.

—প্রতীকী ছবি।

শ্রীমতী অপালা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১২ জানুয়ারি ২০২৪ ১৮:৫২
Share: Save:

১৫ জানুয়ারি ২০২৪ সোমবার মকর সংক্রান্তি। মকর সংক্রান্তি বাঙালির একটি উল্লেখযোগ্য উৎসব। বাংলা পৌষ মাসের শেষ দিন এই উৎসব পালন করা হয়। এই দিন নতুন ফসল যেমন— নতুন চাল, খেজুরের গুড়, দুধ এই সকল সামগ্রী দিয়ে প্রথমে ভগবানের উদ্দেশ্যে নিবেদন করে এই উৎসব শুরু করা হয়। এবং বাড়ির মহিলারা এই দিনে পিঠে তৈরি করে, তা ছাড়া এই দিনে ঘুড়ি ওড়ানোর প্রথাও অনেক জায়গায় দেখা যায়। এই দিন পুন্যস্নানের দিন, অনেকে গঙ্গায়, সমুদ্রে বা নদীতে স্নান করে পুন্য অর্জন করেন।

মূলত জ্যোতিষশাস্ত্রে এটি একটি ‘ক্ষন’। এই দিন সুর্যদেব তার নিজ কক্ষপথ থেকে মকর রাশিতে প্রবেশ করে তাই এই দিনটিকে মকর সংক্রান্তি বলে। ভারতীয় জ্যোতিষশাস্ত্রে ‘সংক্রান্তি’ একটি সংস্কৃত শব্দ। এর দ্বারা সুর্যের এক রাশি থেকে অন্য রাশিতে প্রবেশ বোঝায়।

এ বার দেখে নেওয়া যাক মকর সংক্রান্তির দিনের বিশেষ টোটকা

১) বাড়ির মহিলারা এই দিন সকালে সর্ব প্রথম ভগবানের পুজো না করে বা ভগবানের উদ্দেশ্যে প্রথমে কিছু খাবার দিন, তারপর বাড়ির অন্যদের খাবার পরিবেশন করুন। ভুলেও ঠাকুরকে খেতে না দিয়ে অন্য কাউকে কিছু খেতে দেবেন না।

২) সাধারণত এই দিনটিতে বাড়িতে আমিষ কিছু রান্না করবেন না। যতটা সম্ভব নিরামিষ রান্না করতে হবে। এবং রান্নার দ্রব্যের মধ্যে কালো তিল থাকলে খুব উত্তম।

৩) এই দিন মহিলারা বাড়ির বড়দের অর্থাৎ বয়স্ক কারও মনে ভুল করেও দুঃখ দেবেন না। কারও সঙ্গে ঝগড়া ঝামেলা বা বিবাদ করবেন না।

৪) এই দিন বাড়িতে যদি কোনও গরীব, দুঃখী বা ভিখারী আসে তবে কোনও মতেই তাকে খালি হাতে ফেরাবেন না। কিছু না কিছু তাকে দান করার চেষ্টা করবেন।

৫) বিশেষ করে খেয়াল রাখতে হবে মকর সংক্রান্তির দিন যেন কেউ বাড়ি থেকে দূরে কোথাও যাত্রা না করে। এই দিন বাড়ির মানুষ বাড়ি থেকে দূরে কোথাও যাওয়া অশুভ বলে মনে করা হয়। যদি বাড়ির কেউ বাইরে থাকে তাহলে এই দিন বাড়ি ফিরে আসাই শুভ। বাড়ির সকলে মিলে এই উৎসব এক সঙ্গে পালন করতে হয়।

৬) এই দিন হলুদ বস্ত্র পরে সূর্যদেবকে জল অর্পণ করতে হবে। এবং পুজোর সময় সূর্য চালিশা পাঠ করা অত্যন্ত শুভ।

৭) মনে করা হয় এই দিন বাড়িতে খিচুড়ি খাওয়া বা খিচুড়ি দান করা খুব ভাল।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE