Advertisement
২৮ জানুয়ারি ২০২৩

সভা বাতিল করতে ২৫ লক্ষ টাকার প্রস্তাব দিয়েছিল কংগ্রেস! দাবি ওয়াইসির

শুধুমাত্র তেলঙ্গানার কংগ্রেস নেতারাই নন, ওয়াইসির এই অভিযোগ নিয়ে মুখ খুলেছেন দলের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গাঁধীও।

ওয়াইসির অভিযোগকে অস্বীকার করে তাঁর সমালোচনা করতে ছাড়েনি কংগ্রেস। —ফাইল চিত্র।

ওয়াইসির অভিযোগকে অস্বীকার করে তাঁর সমালোচনা করতে ছাড়েনি কংগ্রেস। —ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
হায়দরাবাদ শেষ আপডেট: ২০ নভেম্বর ২০১৮ ১৯:৫৪
Share: Save:

তেলঙ্গানায় নির্বাচনী সভা বাতিল করতে তাঁর দলকে ২৫ লক্ষ টাকা দিতে চেয়েছে কংগ্রেস। ভরা জনসভায় এমনটাই অভিযোগ করলেন হায়দরাবাদের সাংসদ আসাদউদ্দিন ওয়াইসি। এ বিষয়ে তাঁর কাছে একটি অডিয়ো টেপও রয়েছে বলে দাবি করেছেন তিনি। যদিও ওয়াইসির এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন কংগ্রেস নেতৃত্ব।

Advertisement

আগামী ৭ ডিসেম্বর তেলঙ্গানায় বিধানসভা নির্বাচন। তার আগে নির্মল বিধানসভা কেন্দ্রে টিআরএস-এর হয়ে প্রচারে একটি জনসভায় আয়োজন করেছিল ওয়াইসির দল অল ইন্ডিয়া মজলিস-এ-ইত্তেহাদ-এ-মুসলিমিন (এআইএমআইএম)। সোমবার ওই জনসভায় তাঁর অভিযোগ, “আমাদের সভা বাতিল করলে দলের ফান্ডে ২৫ লক্ষ টাকা দেবে ওরা (কংগ্রেস)। এ ধরনের পার্টিকে কী বলবেন আপনি?” এখানেই থেমে থাকেননি ওয়াইসি। তাঁর মন্তব্য, “এ ধরনের প্রস্তাবেই বোঝা যায়, ওই দলটা (কংগ্রেস) কী উদ্ধত! কেউ এটা অস্বীকার করতে চাইলে তার বিরুদ্ধে আমাদের কাছে প্রমাণও রয়েছে।” ওয়াইসির আরও হুঁশিয়ারি, “আমাকে কেউ কিনতে পারবেন না। ওয়াইসি নিজের জীবন ত্যাগ করতে পারে, কিন্তু প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করতে পারে না।”

ওয়াইসির অভিযোগকে অস্বীকার করে তাঁর সমালোচনা করতে ছাড়েনি কংগ্রেস। রাজ্যের কংগ্রেস নেতা মীম আফজল বলেন, “ওদের কাছে কোনও প্রমাণ নেই। আর কোনও প্রমাণের প্রয়োজনীয়তাও নেই। কারণ এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা কথা।” ওয়াইসি যে বিজেপিকে সুবিধা পাইয়ে দিতেই এ ধরনের মন্তব্য করেছেন, তা-ও দাবি করেছেন ওই কংগ্রেস নেতা। তিনি বলেন, “ওয়াইসি যখন কোনও ইস্যুতে মুখ খোলেন, তখন তা বিজেপির সমর্থনেই করেন। তেলঙ্গানায় শক্তিশালী দল হিসাবে উঠে আসছে কংগ্রেস। এই কারণেই এ ধরনের মন্তব্য করছেন ওয়াইসি।”

শুধুমাত্র তেলঙ্গানার কংগ্রেস নেতারাই নন, এই অভিযোগ নিয়ে মুখ খুলেছেন দলের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গাঁধীও। বিজেপি-র মতোই ওয়াইসিও ঘৃণা এবং বিভেদের নীতিতে বিশ্বাসী বলে দাবি করেছেন তিনি। “বিজেপি, টিআরএস এবং এআইএমআইএম সকলেই একে অপরের ঘনিষ্ঠ।” অভিযোগ রাহুলের।

Advertisement

আরও পড়ুন: আপনারা শুনানির যোগ্য নন, তথ্য ফাঁসে ক্ষুব্ধ সুপ্রিম কোর্ট বলল অলোক-আস্থানা শিবিরকে

আরও পড়ুন: মুজফ্‌ফরপুর বেসরকারি হোম কাণ্ডে আত্মসমর্পন করলেন প্রাক্তন মন্ত্রী

হায়দরাবাদের পুরনো শহর থেকে সাতটি আসনে প্রার্থী দিয়েছে এআইএমআইএম। নির্মল বিধানসভা কেন্দ্রে প্রচার চালালেও সেখান থেকে নির্বাচন লড়ছে না এআইএমআইএম। বরং এই কেন্দ্রে টিআরএস-এর সমর্থনের প্রচার চালাচ্ছে তারা। কংগ্রেস প্রার্থী মহেশ্বর রেড্ডির বিরুদ্ধে এই কেন্দ্রে প্রার্থী দিয়েছে টিআরএস। আগামী মাসের নির্বাচনেতাদের হয়ে লড়বেন পি ইন্দ্রকরণ রেড্ডি।

আগামী বছর লোকসভার পাশাপাশি তেলঙ্গানায় বিধানসভা নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। তবে সম্প্রতি টিআরএস সরকার বিধানসভা ভেঙে দিলে সময়ের আগেই তার নির্বাচন হবে। ভোটের ফলপ্রকাশ হবে ১১ ডিসেম্বর।

(দেশজোড়া ঘটনার বাছাই করা সেরা বাংলা খবর পেতে পড়ুন আমাদের দেশ বিভাগ।)

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.