×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৮ জুন ২০২১ ই-পেপার

সেপ্টেম্বরেই দ্বিতীয় টিকা আনতে পারে সিরাম, বললেন সিইও আদার পুনাওয়ালা

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ২৭ মার্চ ২০২১ ১৮:৩১


প্রতীকী ছবি।

সেপ্টেম্বরেই তাদের তৈরি করোনার দ্বিতীয় টিকা কোভোভ্যাক্স’ বাজারে আসতে পারে বলে মনে করছে সিরাম ইনস্টিটিউট অব ইন্ডিয়া (এসআইআই)। শনিবার এ খবর টুইট করে জানিয়েছেন সংস্থার সিইও আদার পুনাওয়ালা। বৃহস্পতিবার থেকে এ দেশে কোভোভ্যাক্স’-এর ট্রায়াল শুরু হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। করোনার ব্রিটেন এবং দক্ষিণ আফ্রিকার প্রজাতির বিরুদ্ধে লড়াইতে সব মিলিয়ে এই টিকা ৮৯ শতাংশ কার্যকর বলে দাবি সিরামের।

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এবং অ্যাস্ট্রাজেনেকার যৌথ উদ্য়োগে তৈরি টিকা ‘কোভিশিল্ড’-এর উৎপাদন করছে সিরাম। চলতি বছরের জুনেই তাদের দ্বিতীয় টিকা ‘কোভোভ্যাক্স’ প্রয়োগের জন্য তৈরি হয়ে যাবে বলে আশা প্রকাশ করেছিলেন আদার। তবে তা পিছিয়ে গিয়ে সেপ্টেম্বরে হতে পারে বলে মনে করছেন তিনি।

শনিবার আদারের টুইট, ‘অবশেষে ভারতে কোভোভ্যাক্সের ট্রায়াল শুরু হল। নোভাভ্যাক্স এবং সিরামের যৌথ উদ্যোগে তৈরি এই টিকা কোভিডের দক্ষিণ আফ্রিকা এবং ব্রিটেনের নতুন প্রজাতির বিরুদ্ধে সব মিলিয়ে ৮৯ শতাংশ প্রতিরোধক। আশা করি সেপ্টেম্বরেই এটি ছাড়া যাবে’।

Advertisement

সিরাম জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার থেকে পুণের একটি হাসপাতালে ‘কোভোভ্যাক্সে’র পরীক্ষা শুরু হয়েছে। পুণে ছাড়া দিল্লির গবেষণাগারে এর পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করা হচ্ছে। ভবিষ্যতে দেশের ১৯টি জায়গায় ১ হাজারেরও বেশি স্বেচ্ছাসেবকদের এই টিকা দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছে সিরাম। সংস্থার দাবি, ব্রিটেনে তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালে করোনার বিরুদ্ধে ৯৬ শতাংশ প্রতিরোধ গড়ে তুলতে সক্ষম হয়েছে ‘কোভোভ্যাক্স’। তবে করোনার ব্রিটিশ অবতারের বিরুদ্ধে এটি ৮৬.৩ শতাংশ কার্যকরী বলে জানা গিয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকার প্রজাতির সঙ্গে লড়াইতে এর সাফল্য কমে দাঁড়িয়েছে ৪৮.৬ শতাংশে। যদিও সামগ্রিক ভাবে এটি ৮৯ শতাংশ কার্যকর বলে দাবি করেছে সিরাম। প্রসঙ্গত, গত জানুয়ারিতে ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া (ডিসিজিআই)-র কাছে এই টিকার দ্বিতীয় পর্যায়ের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের আবেদন করেছিল আদারের সংস্থা। চলতি সপ্তাহে সেই ট্রায়াল শুরু হয়েছে।

Advertisement