Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ই-পেপার

রামকৃষ্ণ মিশন নিয়ে অপপ্রচার

নিজস্ব সংবাদদাতা
গুয়াহাটি ০১ ডিসেম্বর ২০২০ ০২:০৬
ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

মেঘালয়ে খাসি বনাম বাঙালির মধ্যে বিদ্বেষ ছড়ানোর যে অপচেষ্টা চলছে— সেখানে এ বার জড়িয়ে দেওয়া হল রামকৃষ্ণ মিশনের নামও।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় খবর ছড়ায়, খাসি ছাত্র সংগঠন শিলং রামকৃষ্ণ মিশনে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে। তা নিয়ে চলে প্রতিবাদও।

ছবি আপলোড করে দাবি করা হয়, রামকৃষ্ণ মিশনের দরজায় তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে! বিষয়টির সত্যতা অস্বীকার করে রামকৃষ্ণ মিশনের তরফে জানানো হয়, ২৩ নভেম্বর খাসিদের ১২১ তম সেংকুত স্নেম উৎসব উপলক্ষে সরকারি ছুটি ছিল। কিন্তু সরকারি নির্দেশ মেনেই কয়েক জন ছাত্রছাত্রী পড়ার সমস্যা বুঝতে সেন্টারে এসেছিল। কয়েক জন শিক্ষকও ছিলেন। চেরাপুঞ্জিতে মিশনের বিভিন্ন স্কুলে অনলাইনেই ক্লাস ও পরীক্ষা চলছে। তার জন্যেও গোটা বিষয়টি ও সার্ভার সচল রাখতে শিলংয়ের ওই কেন্দ্র চালু রাখতে হয়। মিশনের সেক্রেটারি মহারাজ হিতকামামন্দজি জানান, হঠাৎ করেই সে দিন কয়েক জন স্থানীয় যুবক রামকৃষ্ণ মিশন বিবেকানন্দ কালচারাল সেন্টারে হাজির হয়ে দাবি করে, ছুটির দিনেও স্কুল খোলা রেখে আমরা তাদের উৎসবের অপমান করছি। কর্মীরা তাঁদের বোঝান। এর পর ছাত্রছাত্রীদের বার করে তাঁরাই তালা লাগিয়ে দেন। কিন্তু সেই তালা ঝোলা দরজার ছবি তুলে সম্ভবত নিজেদের কৃতিত্ব প্রকাশের প্রমাণস্বরূপ সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করেন ওই যুবকরা। লিখে দেন রামকৃষ্ণ মিশনে তালা ঝোলানো হয়েছে। বিষয়টি আদৌ তা নয়। পরে সব স্বাভাবিক ভাবেই চলেছে।

Advertisement

হিতকামানন্দজি বলেন, “যদিও এ নিয়ে আমরা পুলিশে এফআইআর করেছি। কারণ, ছাত্রছাত্রীদের স্বার্থে, মেঘালয়ের মানুষের স্বার্থে প্রায় নয় দশক ধরে এখানে কাজ করছে রামকৃষ্ণ মিশন। তাদের কেন্দ্রে এসে এই ধরনের আচরণ ও স্থানীয় সংস্কৃতিকে অপমান করা মিথ্যা অপবাদ দেওয়ার ঘটনা একেবারেই অনভিপ্রেত।”

আরও পড়ুন

More from My Kolkata
Advertisement