×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৩ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

সীমান্তে স্থিতাবস্থা নষ্ট করতে চক্রান্ত চিনের, জানালেন সেনাপ্রধান

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ১৫ জানুয়ারি ২০২১ ১৬:২৯
গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

চলতি সপ্তাহেই সাংবাদিক বৈঠকে চিন এবং পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সীমান্তে অশান্তি সৃষ্টির অভিযোগ এনেছিলেন তিনি। শুক্রবার দুই পড়শি দেশের উদ্দেশে ভারতীয় সেনার প্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নরবণের হুঁশিয়ারি, ‘‘কেউ যেন আমাদের ধৈর্য্যের পরীক্ষা নেওয়ার ভুল না করে।’’

৭৩তম সেনা দিবস অনুষ্ঠানের বক্তৃতায় নরবণে লাদাখের সাম্প্রতিক অশান্তির জন্য সরাসরি চিনের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলেছেন। তাঁর মন্তব্য, ‘‘পূর্ব লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা (এলএসি)-র স্থিতিশীলতা নষ্ট করার জন্য একতরফা ষড়যন্ত্র করছে চিন।’’

চিনের পাশাপাশি পাকিস্তানের প্রসঙ্গও শুক্রবার সেনাপ্রধানের বক্তৃতায় এসেছে। তাঁর অভিযোগ, জম্মু ও কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণরেখার ওপারে ঘাঁটি গেড়ে রয়েছে ৩০০-৪০০ জন জঙ্গি। তাদের উদ্দেশ্য, পাক অধিকৃত কাশ্মীর থেকে উপত্যকায় অনুপ্রবেশ করে নাশকতা ছড়ানো। পাক সেনার তরফে সংঘর্ষ বিরতি লঙ্ঘনের ঘটনা সাম্প্রতিক কালে অন্তত ৪০ শতাংশ বেড়েছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার সন্ত্রাস প্রসঙ্গে পাকিস্তানকেও হুঁশিয়ারি দিয়ে নরবণে বলেছিলেন, “যে ভাবে সীমান্তে পাকিস্তান জঙ্গি কার্যকলাপ বাড়াচ্ছে, তা কোনও ভাবেই বরদাস্ত করা হবে না। আঘাত এলে উপযুক্ত প্রত্যাঘাত করা হবে।”

Advertisement

আরও পড়ুন: চিতাবাঘ খেলছে এক দল মানুষের সঙ্গে! ভিডিয়োতে অবাক বিশেষজ্ঞরা

গত ১৫ জুন গালওয়ান উপত্যকায় চিনের পিপলস লিবারেশন আর্মি (পিএলএ)-র হামলায় ২০ জন ভারতীয় সেনার মৃত্যুর প্রসঙ্গও উল্লেখ করেন সেনাপ্রধান। তাঁর মন্তব্য, ‘‘শহিদদের আত্মত্যাগ ব্যর্থ হবে না।’’ এর পরেই দিল্লিতে ‘আর্মি ডে প্যারেড’ অনুষ্ঠানে তাঁর মন্তব্য, ‘‘আমরা আলোচনা এবং রাজনৈতিক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে মতবিরোধ মেটাতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। কিন্তু তা বলে কেউ যেন আমাদের ধৈর্য্যের পরীক্ষা নেওয়ার ভুল না করে।’’ জেনারেল নরবণের পাশাপাশি সেনা দিবসের অনুষ্ঠানে ‘চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ’ জেনারেল বিপিন রাওয়ত এবং নৌসেনা ও বায়ুসেনার প্রধান হাজির ছিলেন।

আরও পড়ুন: করোনা আবহের কারণে প্রধান অতিথি বিহীন প্রজাতন্ত্র দিবস

Advertisement