Advertisement
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Raj Thackeray

ওষুধের দোকানের সামনে রাজনৈতিক তোরণে আপত্তি, মহিলাকে রাস্তায় ফেলে মার রাজ ঠাকরের দলের

মুম্বা দেবী এলাকায় রাজনৈতিক তোরণ লাগানোর কাজ করছিলেন এমএনএস নেতা, কর্মীরা। তাঁর ওষুধের দোকানের সামনে তোরণ লাগাতে বাধা দেন প্রকাশ। তাতেই শুরু মারধর। প্রকাশকে রাস্তায় ফেলে মারা হয়।

মহিলার উপর চড়াও রাজ ঠাকরের দলের নেতা-কর্মীরা।

মহিলার উপর চড়াও রাজ ঠাকরের দলের নেতা-কর্মীরা। ভিডিয়ো থেকে নেওয়া।

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই শেষ আপডেট: ০১ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৬:৫১
Share: Save:

দোকানের সামনে রাজনৈতিক দলের প্রচারমূলক তোরণ করতে দিতে আপত্তি জানিয়েছিলেন প্রকাশ দেবী। এই ‘অপরাধে’ কপালে জুটল মার, অকথ্য গালিগালাজ। ঘটনাটি ঘটেছে মুম্বইয়ে। মারধরের অভিযোগ রাজ ঠাকরের মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনা (এমএনএস)-এর বিরুদ্ধে। অধরা নিগ্রহকারীরা।

মুম্বইয়ের মুম্বা দেবী এলাকায় প্রচার তোরণ লাগাচ্ছিলেন এমএনএস কর্মীরা। একই এলাকায় ওষুধের দোকান প্রকাশ দেবীর। তোরণের একটি পা তাঁর দোকানের সামনেই বসানোর চেষ্টা করছিলেন এমএনএস কর্মীরা। প্রকাশ তাতে বাধা দেন। আর বাধা পেয়েই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন এমএনএস নেতা-কর্মীরা। চলে বেধড়ক মারধর। সেই সঙ্গে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ। এই ঘটনার একটি ভিডিয়ো সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে, প্রকাশকে ঘিরে ধরে মারছেন এমএনএস নেতা-কর্মীরা। এক সময় মারের চোটে প্রকাশ রাস্তায় পড়ে যান। তাতেও থামেনি লাথি, চড়, ঘুসি। রাস্তা দিয়ে সেই সময় অনেকেই হেঁটে চলে যান। কেউ ভ্রূক্ষেপ পর্যন্ত করেননি। ৮০ সেকেন্ডের ওই ভিডিয়ো ক্লিপটির সত্যতা যাচাই করেনি আনন্দবাজার অনলাইন।

ঘটনাটি ঘটেছে গত ২৮ অগস্ট। কিন্তু এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ঘটনায় কোনও মামলা রুজু করেনি পুলিশ। সূত্রের খবর, ভিডিয়ো ভাইরাল হওয়ার পর পুলিশ নির্যাতিতা মহিলাকে তুলে নিয়ে গিয়ে শারীরিক পরীক্ষা করায়। যদিও ঘটনা ঘটেছিল চার দিন আগে।

এ বিষয়ে রাজ ঠাকরের দলের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। প্রসঙ্গত, পারিবারিক বিবাদে কাকা বাল ঠাকরের শিবসেনা ছেড়ে ভাইপো রাজ নিজের দল মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনা তৈরি করেন। মূলত, বাল ঠাকরের মতাদর্শে দল চালানোর দাবি করলেও রাজ ঠাকরের দলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময় গুন্ডামির অভিযোগ শোনা যায়। রাজনৈতিক ভাবে রাজের এমএনএস এখনও পায়ের তলায় জমি শক্তি করতে পারেনি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE