Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৬ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

হ্যালকে বন্ধ করাই মোদীর চক্রান্ত: রাহুল

গত সপ্তাহে লোকসভায় প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারামন দাবি করেছিলেন, রাষ্ট্রায়ত্ত্ব সংস্থা হ্যালকে এক লক্ষ কোটি টাকার বরাত দিয়েছে মোদী সরকার

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি ০৮ জানুয়ারি ২০১৯ ০৪:৫১
Save
Something isn't right! Please refresh.
রাজ্যসভাতেও চেয়ারম্যান রাফাল নিয়ে আলোচনা করতে দিচ্ছেন না বলে অভিযোগ কংগ্রেসের।—ছবি পিটিআই।

রাজ্যসভাতেও চেয়ারম্যান রাফাল নিয়ে আলোচনা করতে দিচ্ছেন না বলে অভিযোগ কংগ্রেসের।—ছবি পিটিআই।

Popup Close

রাফাল আক্রমণ জারি রেখে এ বার রাহুল গাঁধী সরকারি হিসেবের ‘গরমিল’ ধরিয়ে দিয়ে অভিযোগ করলেন, ‘বন্ধু’ শিল্পপতি অনিল অম্বানীকে সাহায্য করতে গিয়ে রাষ্ট্রায়ত্ত্ব সংস্থাকে বন্ধ করার ষড়যন্ত্র করছেন প্রধানমন্ত্রী।

গত সপ্তাহে লোকসভায় প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারামন দাবি করেছিলেন, রাষ্ট্রায়ত্ত্ব সংস্থা হ্যালকে এক লক্ষ কোটি টাকার বরাত দিয়েছে মোদী সরকার। তা নিয়ে গত কাল রাহুল চ্যালেঞ্জ করেছিলেন। আজ লোকসভায় তা নিয়ে অধিকারভঙ্গের প্রস্তাব আনে কংগ্রেস। কিন্তু এ দিন বিরোধীদের বলতে না দিয়েই নির্মলা একতরফা দাবি করেন, গত চার বছরে ২৬,৫৭০ কোটি টাকার চুক্তি করা হয়েছে হ্যালের সঙ্গে। আরও প্রায় ৭৩ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প পাইপলাইনে রয়েছে।

সংসদে বলার সুযোগ না পেয়ে বাইরে বেরিয়ে নির্মলার বক্তব্যের বিরোধিতায় সরব হন কংগ্রেস সভাপতি। তাঁর অভিযোগ, নির্মলা যা বলেছেন, সব মিথ্যা। ৭৩ হাজার কোটি টাকা দেওয়াটা পুরোটাই ভাঁওতা। কারণ নির্মলাই বলেছেন, সে সবের প্রযুক্তিগত খুঁটিনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। রাহুলের দাবি, পুরনো বিমান ও কপ্টার তৈরি করে দেওয়ার পরেও হ্যালকে ১৫,৭০০ কোটি টাকা দেওয়া হয়নি। যে কারণে এখন ধার করে মাইনে দিতে হচ্ছে হ্যালকে।

Advertisement

এর পরেই মোদীর উদ্দেশে প্রশ্ন ছোড়েন রাহুল: ‘‘অনিল অম্বানীর বন্ধু দাসো একটিও রাফাল তৈরি করেনি, অথচ সরকার ২০ হাজার কোটি টাকা দিয়ে বসে আছে। আর হ্যাল বিমান তৈরি করেও টাকা পাচ্ছে না। ধারাবাহিক ভাবে রাষ্ট্রায়ত্ত্ব সংস্থা বন্ধ করার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে, যাতে হ্যাল থেকে মেধাবী ইঞ্জিনিয়ার, বিজ্ঞানীরা অনিল অম্বানীর সংস্থায় চলে যেতে বাধ্য হন।’’

আরও পড়ুন: উচ্চবর্ণের মন পেতে ১০ শতাংশ সংরক্ষণ, ভোটে ‘কল্পতরু’ মোদী

লোকসভায় রাহুলের প্রশ্ন ছিল, রাফালে মোদীর হস্তক্ষেপে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক ও বায়ুসেনার কর্তারা আপত্তি করেছিলেন কি না। এর জবাব ‘হ্যাঁ’ বা ‘না’-তে চেয়েছিলেন কংগ্রেস সভাপতি। তার জবাব না দিয়ে নির্মলা আবেগের আশ্রয় নিয়ে পাল্টা অভিযোগ করেন, তিনি মধ্যবিত্ত পরিবার থেকে এসেছেন বলেই তাঁকে মিথ্যেবাদী বলা হচ্ছে। রাহুল পরে বলেন, নির্মলা মধ্যবিত্ত পরিবার থেকে এসেছেন, সেটিও মিথ্যে!

ঘটনা হল, এই নিয়ে তিন দিন লোকসভায় রাফাল বিতর্ক উঠল, কিন্তু সংসদে প্রধানমন্ত্রী আসেননি। রাজ্যসভাতেও চেয়ারম্যান রাফাল নিয়ে আলোচনা করতে দিচ্ছেন না বলে অভিযোগ কংগ্রেসের। এমনকি আজ কংগ্রেস নেতারা স্পিকারের বিরুদ্ধেও অভিযোগ তোলেন, তাঁদের বলতে না দেওয়ার জন্য। রাহুল পরে ফের বলেন, ‘‘আমার সঙ্গে ১৫ মিনিট বিতর্কে আসুন নরেন্দ্র মোদী, ১৬ মিনিটও চাই না। পুরো দেশ বুঝবে রাফালে কী আছে।’’ সে ডাকে এখনও সাড়া দেননি মোদী। তাঁর মন্ত্রীরাই আপাতত আসরে নেমেছেন আক্রমণ সামলাতে। আজ রবিশঙ্কর প্রসাদ প্রশ্ন ছোড়েন— রাফাল চুক্তি ইউপিএ আমলে হয়নি কেন? রাহুল গাঁধী কি ইউরোফাইটারের দালালের চাপে রয়েছেন? রাহুল বায়ুসেনার মনোবল দুর্বল করছেন বলেও অভিযোগ তাঁর।

শুধু এই নয়। এ দিন লোকসভায় এক নাগাড়ে বলার পরে ফের একটি টেলিভিশন চ্যানেলে সাক্ষাৎকার দেন নির্মলা। সেখানে তিনি ঠিকঠাক তথ্য দিতে শেখার জন্য রাহুলের শিক্ষকের প্রয়োজন বলে কটাক্ষ করেন। দাবি করেন, ইউপিএ আমলে হ্যালকে যত কাজ দেওয়া হয়েছে, মোদী জমানায় তার দ্বিগুণ অঙ্কের কাজ দেওয়া হয়েছে। ১২৬টি বিমান কমিয়ে ৩৬টি বিমান কেনার সিদ্ধান্ত কেন মিলেন মোদী, এ প্রশ্ন তুলেছিল কংগ্রেস। নির্মলা এ দিন দাবি করেন, বায়ুসেনা ৫০০ বিমান চেয়েছিল। ইউপিএ সরকারও সেটা কমিয়ে ১২৬ করেছিল। উত্তরে কংগ্রেসের তরফে বক্তব্য একটাই— নির্মলা লোকসভায় দাঁড়িয়ে ভুল তথ্য দিয়েছেন! সংবাদমাধ্যমে আরও ভূরি ভূরি ভুল তথ্য বলছেন!

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement