Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ জুন ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

নেতৃত্বকে তিরস্কার করে ইয়েচুরি জমানাতেও তোপের মুখে ভি এস

অতীতে বহু বার দলীয় নেতৃত্বের তোপের মুখে পড়তে হয়েছে তাঁকে। কিন্তু সিপিএমে তখন প্রকাশ কারাট জমানা। এ বার সীতারাম ইয়েচুরির সিপিএমেও তিরস্কারে

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি ১৯ মে ২০১৫ ০৩:৩২
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

অতীতে বহু বার দলীয় নেতৃত্বের তোপের মুখে পড়তে হয়েছে তাঁকে। কিন্তু সিপিএমে তখন প্রকাশ কারাট জমানা। এ বার সীতারাম ইয়েচুরির সিপিএমেও তিরস্কারের হাত থেকে রেহাই পেলেন না কেরলের বিরোধী দলনেতা ভি এস অচ্যুতানন্দন!

কারাট ও পিনারাই বিজয়নকে আক্রমণ করে তিরস্কৃত হতে হল নবতিপর ভি এস-কে। গত ২০০৯ ও ২০১৪ লোকসভা নির্বাচনে কেরলে সিপিএমের খারাপ ফলের জন্য একই সঙ্গে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব ও রাজ্য নেতৃত্বকে দোষারোপ করে রবিবার ফের বিবৃতি দিয়েছিলেন দলের এই প্রতিষ্ঠাতা সদস্য। ইঙ্গিত ছিল প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক কারাট ও প্রাক্তন রাজ্য সম্পাদক বিজয়নের দিকে। ভি এসের সেই বক্তব্য আজ কড়া ভাষায় খারিজ করে দিয়েছেন সিপিএমের শীর্ষ নেতৃত্ব। পলিটব্যুরোর তরফে বিবৃতি জারি করে বলা হয়েছে, ‘কেন্দ্র ও রাজ্য নেতৃত্বের বিরুদ্ধে অচ্যুতানন্দনের প্রকাশ্যে সমালোচনা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন ও ভুল। পলিটব্যুরো এই অভিযোগ খারিজ করছে। প্রকাশ্যে অচ্যুতানন্দনের এই ধরনের মন্তব্য দলের স্বার্থে নয়।’

বিজয়নের বিরুদ্ধে ভি এসের সমালোচনা নতুন নয়। এর আগেও এ জন্য দলের তিরস্কারের মুখে পড়তে হয়েছে তাঁকে। কিন্তু এত দিন অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ইয়েচুরি ভি এসের পাশে দাঁড়াতেন। এ বার বিশাখাপত্তনম পার্টি কংগ্রেসে ইয়েচুরি সাধারণ সম্পাদক হওয়ার ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন ভি এস।

Advertisement

সিপিএম সূত্রের খবর, রবিবার দিল্লিতে পলিটব্যুরো বৈঠক চলাকালীনই সংবাদমাধ্যমে মুখ খোলেন ভি এস। তিনি বলেন, ২০০৪-এর পরে যাঁরা দলের নেতৃত্বে এসেছেন, তাঁদের ভুল নীতির জন্যই দুই লোকসভা নির্বাচনে কেরলে বাম জোটকে ধাক্কা খেতে হয়েছে। বাম জোট থেকে জেডি (ইউ) ও আরএসপি-র বেরিয়ে যাওয়ার জন্যও ভুল নীতিকে দায়ী করেন তিনি।

তবে তিনি ঠিক কী বলেছেন, তার খবর দিল্লিতে আসার আগেই বৈঠক শেষ হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু ভি এসের বক্তব্যের প্রেক্ষিতে যাতে তাঁর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হয়, তার জন্য কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের উপরে বিজয়ন ও বর্তমান রাজ্য সম্পাদক কোডিয়েরি বালকৃষ্ণণ প্রবল চাপ তৈরি করেন। ইয়েচুরিও এখনই কেরলের রাজ্য নেতৃত্বকে চটানোর ঝুঁকি নিতে চাননি।

সোমবার দিল্লিতে উপস্থিত পলিটব্যুরোর সদস্যদের বৈঠকে ঠিক হয়, ভি এসের অভিযোগ খারিজ করে বিবৃতি দেওয়া হবে। একে দলের সংবিধান অনুযায়ী ‘প্রকাশ্য ভর্ৎসনা’ বলতে রাজি নন পলিটব্যুরো নেতারা। তাঁদের বক্তব্য, এই বিবৃতি জারি করে ভি এস অচ্যুতানন্দনের বক্তব্য প্রকাশ্যে খারিজ করা হল।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement