Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৬ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied

দেশ

কেন্দ্রীয় সরকার নিষিদ্ধ করল এই ভুয়ো অ্যাপগুলি, আপনার ফোনে নেই তো?

নিজস্ব প্রতিবেদন
১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ ১৬:৩৪
প্রধানমন্ত্রী জনআরোগ্য যোজনা বা আয়ুষ্মান ভারত যোজনা-র বাস্তবায়নের দিকটা খতিয়ে দেখছিল জাতীয় স্বাস্থ্য সংস্থা বা ন্যাশনাল হেল্থ এজেন্সি। সেই জাতীয় স্বাস্থ্য সংস্থাই ৮৯টি ফেক ওয়েবসাইট এবং মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনকে বাতিল করে দিল। সেই অ্যাপস এবং ওয়েবসাইটগুলি সম্পর্কে জেনে নিন।

এই ওয়েবসাইটিগুলি এবং অ্যাপসগুলির বিরুদ্ধে অভিযোগ, কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পগুলি সম্পর্কে মানুষের কাছে ভুল তথ্য পৌঁছে দিচ্ছে। অভিযোগ এ-ও, বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রচারের মাধ্যমে মানুষকে প্রকল্পগুলির আওতাভুক্ত করা হচ্ছে।
Advertisement
ন্যাশনাল হেল্থ এজেন্সির তদন্তের পর দেখা গিয়েছে, আয়ুষ্মান মিত্র বা আরোগ্য মিত্রদের চাকরিও দিচ্ছে ওই ওয়েবসাইটগুলি। যাঁদের কাজ হল হাসপাতালে রোগীদের এই সব প্রকল্পের তথ্যগুলি সম্পর্কে জানিয়ে তাঁদের এর আওতাভুক্ত করা।

কিন্তু কারা এই ধরনের বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়িয়ে দিচ্ছে? এনএইচএ-এর তদন্তে পরিষ্কার যে, বেশ কিছু অসাধু ব্যক্তি, কিছু সংস্থা, ওয়েবসাইট, কিছু ডিজিটাল মিডিয়া চ্যানেল, মোবাইল অ্যাপস, জব পোর্টাল ওয়েবসাইট এই ভুল তথ্যগুলি মানুষের কাছে পৌঁছে দিচ্ছে।
Advertisement
কী ভাবেই বা ছড়িয়ে পড়ছে ভুল তথ্য?  কখনও ইমেলের মারফত, তো কখনও আবার হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজের মাধ্যমে, রেজিস্ট্রেশন পোর্টাল, জব আপডেট, ব্লগ পোস্ট, ওয়েব লিঙ্ক, ভিডিয়ো চ্যানেলের মাধ্যমে মানুষের কাছে এই সব ভুয়ো প্রকল্পের আওতাভুক্ত হতে আবেদন জানানো হয়।

তবে এই ৮৯টি ওয়েবসাইট এবং অ্যাপসের যে সবকটিই ভুল তথ্য দিচ্ছে এমনটা নয়। ন্যাশনাল হেল্থ এজেন্সির তদন্তে পরিষ্কার যে, এই সব প্রকল্পের আওতাভুক্ত হলে মানুষকে ঠকতে হবে।

ভুয়ো ওয়েবসাইগুলির তালিকায় রয়েছে, দীপাবলি, সেভেন্থ পে কমিশন ইনফো, প্রধানমন্ত্রী স্কিম, ইন্ডিয়ামার্ট, গভট-যোজনা, কিকালি.ইন, গ্যাজেটস আপডেট হিন্দি (অ্যাপ্লিকেশন), সিএইচএসএমএ.ইন, ভারত-সরকার.কো, সুকন্যা সমৃদ্ধি অ্যাকাউন্ট যোজনা, অ্যাপ্লাই ডেস্ক, হিন্দি গুরুকুল এবং আরও বেশ কিছু।

আর কেন্দ্রীয় সরকারের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত অ্যাপস এবং ওয়েবসাইটগুলির মধ্যে রয়েছে, আয়ুষ্মানভারত.নেট, আয়ুষ্মানভারত, আয়ুষ্মানভারতযোজনা, আয়ুষ্মানযোজনা, মোদিকেয়ারইনসিওরেন্স স্কিম।

২০টি ওয়েবসাইটকে ইতিমধ্যেই ভুয়ো হিসেবে চিহ্নিত করেছে ন্যাশনাল হেল্থ এজেন্সি। আর সেই তালিকায় রয়েছে গভ্ট-যোজনা, সুকন্যা সমৃদ্ধি অ্যাকাউন্ট যোজনা, পিএম জন ধন যোজনা, সরকারি ইয়োজনায়ে, নমস্তেকিসান, দিব্যা জবস, সরকারি ইয়োজনা, মানি ভাস্কর, ইয়োগি ইয়োজনা এর মতো নাম করা অ্যাপস এবং ওয়েবসাইট।

ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে এই অ্যাপস এবং ওয়েবসাইটগুলির নির্মাতাদের বিরুদ্ধে এফআইআর করেছে।

ন্যাশনাল হেল্থ এজেন্সির সিইও ডক্টর ইন্দুভূষণ টুইটারে মানুষকে সতর্ক করেছেন। পরিষ্কার বলে দিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী জনআরোগ্য যোজনায় আওতাভুক্ত হতে কোনও রেজিস্ট্রেশন করতে হয় না। সরাসরি এর আওতায় আসা যায়।