×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৮ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

যোগীর সামনে নতজানু পুলিশ আধিকারিক!

সংবাদ সংস্থা
লখনউ ২৮ জুলাই ২০১৮ ১৬:০৮
ছবি- প্রবীণকুমার সিংহ-র ফেসবুক অ্যাকাউন্টের সৌজন্যে

ছবি- প্রবীণকুমার সিংহ-র ফেসবুক অ্যাকাউন্টের সৌজন্যে

মুখ্যমন্ত্রীর পায়ের কাছে হাঁটুগেড়ে বসে আছেন এক পুলিশকর্মী। হাতজোড় করে আশীর্বাদ নিচ্ছেন। ছবির ক্যাপশনে লেখা ‘ফিলিং ব্লেসড্‌’ অর্থাৎ নিজেকে ধন্য মনে করছেন।

সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের এক পুলিশ অফিসারের এই ছবি ঘিরেই সমালোচনা শুরু হয়েছে দেশ জুড়ে। পুলিশের পোশাকে এক জন কী করে শাসকদলের নেতার কাছে মাথা নোয়াতে পারেন? প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

যাঁর পোস্ট ঘিরে এত বিতর্ক তিনি গোরক্ষপুরের সার্কেল ইনস্পেকটর। নাম প্রবীণকুমার সিংহ। একাধিক থানা তাঁর আওতায়। প্রবীণ সম্প্রতি নিজের ফেসবুকে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের সঙ্গে তোলা কয়েকটি ছবি পোস্ট করেন। তার মধ্যে একটি ছবিতে তাঁকে যোগীর কপালে তিলক কাটতে দেখা গিয়েছে। একটি ছবিতে তিনি যোগীর গলায় মালা পরাচ্ছেন আর আর একটি ছবিতে যোগীর সামনে হাঁটু ভাঁজ করে বসে হাতজোড় করে আশীর্বাদ নিচ্ছেন।

Advertisement

ওই ফেসবুক পোস্ট থেকেই জানা যায়, বহু দিন ধরেই গুরু পূর্ণিমার দিন যোগীর আশীর্বাদ নিতে চাইছিলেন প্রবীণকুমার। কিন্তু সুযোগ হয়ে উঠছিল না। তবে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে নয়, গোরক্ষনাথ মন্দিরের প্রধান পুরোহিত হিসাবেই তাঁর আশীর্বাদ নেন ওই পুলিশকর্মী। তাঁর আশীর্বাদ পেয়ে নিজেকে ভীষণ সৌভাগ্যশালী মনে করছেন, ক্যাপশনে লেখেন তিনি।

আরও পড়ুন: এই প্রথম নির্বাচনে জিতে পাকিস্তান পার্লামেন্টে যাচ্ছেন কোনও হিন্দু

তাঁর পোস্ট খুব দ্রুত ভাইরাল হয়ে যায়। প্রোফাইলে ভীষণ ভাবেই সমালোচিত হন তিনি। এর পর প্রবীণ তাঁর পোস্ট করা ওই ছবিগুলো মুছে ফেলেন। এমনকি ফেসবুক প্রোফাইলও নিষ্ক্রিয় করে দিয়েছেন। তবে তাঁর বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হবে কি না তা জানা যায়নি।

আরও পড়ুন: এ ভাবেও সোনা পাচার সম্ভব! তাজ্জব দুঁদে অফিসাররাও

Advertisement