• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘হুমকি দিচ্ছে আমেরিকা’, পাল্টা পদক্ষেপের হুঙ্কার চিনের

tiktok gfx
গ্রাফিক: তিয়াসা দাস।

সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ টিকটক ও ‘উইচ্যাট’-এর বিরুদ্ধে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসনের পদক্ষেপের তীব্র প্রতিবাদ করল চিন। বেজিংয়ের অভিযোগ, ‘হুমকি’ দিচ্ছে ট্রাম্প প্রশাসন। পরিস্থিতি এমন থাকলে তাদেরও পাল্টা পদক্ষেপ করতে হতে পারে।

দেশের নিরাপত্তা বিঘ্নিত হচ্ছে এই অভিযোগে গত শুক্রবার জনপ্রিয় ভিডিয়ো অ্যাপ টিকটক ডাউনলোড করা নিষিদ্ধ হয়েছে আমেরিকায়। নিষিদ্ধ হয়েছে চিনা সুপার অ্যাপ উইচ্যাটের ব্যবহারও।

এরই প্রতিবাদে শনিবার সরব হয়েছে চিনের বাণিজ্যমন্ত্রক। একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘‘আমেরিকাকে হুমকি দেওয়া বন্ধ করার আর্জি জানাচ্ছে চিন। আমাদের সনির্বন্ধ অনুরোধ, যাবতীয় অনৈতিক কাজকর্ম বন্ধ করুক ওয়াশিংটন। আন্তর্জাতিক নিয়মকানুনের স্বচ্ছ্বতা বজায় রাখুক।’’

তবে এই অনুরোধ ওয়াশিংটন মেনে না নিলে বেজিং যে পাল্টা পদক্ষেপ করতে পিছপা হবে না সে কথাও স্পষ্ট করে দেওয়া হয়েছে চিনা বাণিজ্যমন্ত্রকের বিবৃতিতে।

আরও পড়ুন: ‘ধার করে চলছে কেন্দ্রের সরকার’, বললেন নির্মলা

আরও পড়ুন: চাষিদের থেকে সরকার আর ধান-গম কিনবে না, এটা মনগড়া কাহিনি: মোদী

বলা হয়েছে, ‘‘আমেরিকা যদি এই সব চালিয়ে যাওয়ার গোঁ ধরে বসে থাকে তা হলে চিনা সংস্থাগুলির স্বার্থ ও আইনি অধিকার রক্ষায় বেজিংও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পিছপা হবে না।’’

ট্রাম্প প্রশাসনের গত শুক্রবারের নির্দেশের প্রেক্ষিতে রবিবার থেকে আমেরিকায় আর কোনও কাজই করতে পারবে না উইচ্যাট। টিকটক-এর আপডেটগুলি ইনস্টল করতে পারবেন না আমেরিকায় ওই চিনা ভিডিয়ো অ্যাপের ব্যবহারকারীরা। ১২ নভেম্বরের পর আমেরিকায় একেবারেই নিষিদ্ধ হবে টিকটক।

ট্রাম্প প্রশাসনের এক পদস্থ কর্তা জানিয়েছেন, মার্কিনমুলুকে আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রেক্ষিতে জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থেই এই পদক্ষেপ জরুরি হয়ে উঠেছিল। সেই অনিবার্য পদক্ষেপ করা হয়েছে যথা সময়েই।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন