পরস্পরের চিঠি নিয়ে প্রশংসায় পঞ্চমুখ দুই রাষ্ট্রনেতা!

এ মাসের গোড়ায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে চিঠি এসেছিল পিয়ংইয়্যাং থেকে। উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং উনের পাঠানো সে চিঠি মার্কিন প্রেসিডেন্টের কথায় ছিল ‘অসাধারণ’। এ বার উত্তর কোরিয়ার শাসক কিমের কাছে পৌঁছল ট্রাম্পের ‘ব্যক্তিগত চিঠি’। কিম জানান, সেই চিঠিও নাকি ‘দারুণ’। সঙ্গে এ-ও জানিয়েছেন, চিঠির বিষয়বস্তু গুরুত্ব দিয়ে ভাববেন তিনি। মার্কিন সংবাদমাধ্যম এই চিঠি চালাচালির কথা জানালেও কী ভাবে, কখন ট্রাম্পের চিঠি কিমের কাছে পৌঁছেছে, তা প্রকাশ করেনি। চিঠিতে ট্রাম্প কী লিখেছেন, জানা যায়নি তা-ও। তবে হোয়াইট হাউস চিঠি চালাচালির কথা স্বীকার করেছে। একটি সূত্রে দাবি, ট্রাম্পের জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানাতে চিঠি পাঠিয়েছিলেন কিম। গত ফেব্রুয়ারিতে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ নিয়ে ভিয়েতনামের হ্যানয়ে দুই রাষ্ট্রনেতার বৈঠক ভেস্তে যায়। তার পরেও চিঠি চালাচালি দু’দেশের সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। সম্প্রতি চিনা প্রেসিডেন্ট শি চিনফিংয়ের সঙ্গে পিয়ংইয়্যাংয়ে দেখা হয় কিমের। আগামী সপ্তাহে চিনফিং-ট্রাম্প সাক্ষাৎ হওয়ার কথা জাপানে। বিশেষজ্ঞদের দাবি, সেখানে উত্তর কোরিয়ার তরফে ট্রাম্পকে ইতিবাচক বার্তা দিতে শি-কে অনুরোধ জানিয়ে থাকতে পারেন কিম।

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও।সাবস্ক্রাইব করুনআমাদেরYouTube Channel - এ।