চিনের ভেটোয় মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী ঘোষণা আটকে গিয়েছে। এ বার তাই বিকল্প রাস্তায় জইশ-ই-মহম্মদ প্রধানকে কোণঠাসা করার চেষ্টা শুরু করল ইউরোপের দেশগুলি। মাসুদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার সিদ্ধান্ত নিল ফ্রান্স। ফরাসি সরকারের তরফে বিবৃতি দিয়ে এ কথা জানিয়ে বলা হয়েছে, ইউরোপের অন্যান্য দেশগুলিকেও একই আর্জি জানানো হবে। একই সঙ্গে প্যারিসের ঘোষণা, সন্ত্রাস দমনে সব সময়ই ভারতের পাশে ছিল এবং থাকবে ফ্রান্স।

ফ্রান্সের অভ্যন্তরীণ, অর্থ ও বিদেশ মন্ত্রকের তরফে একটি যৌথ বিবৃতি দিয়েছে ফরাসি সরকার। তাতে বলা জানানো হয়েছে, ফ্রান্সে মাসুদ আজহারের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। ওই বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘নির্দিষ্ট আইনে মাসুদ আজহারের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হবে’।

বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে পুলওয়ামায় জঙ্গি হানার প্রসঙ্গও। বলা হয়েছে, ‘পুলওয়ামায় জঙ্গি হানায় অন্তত ৪০ জন সিআরপি জওয়ানের মৃত্যু হয়েছে। ওই হামলার দায় স্বীকার করেছে জইশ-ই-মহম্মদ। এই জইশকে ২০০১ সাল থেকেই জঙ্গি গোষ্ঠী হিসেবে ঘোষণার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে রাষ্ট্রপুঞ্জ।’ সেই কারণেই ইউরোপের মিত্র দেশগুলিকে এই জঙ্গি সংগঠনের মাথা মাসুদ আজহারের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার জন্য আর্জি জানাবে ফ্রান্স। ইউরোপে সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপে যুক্ত জঙ্গি সংগঠনের তালিকায় জইশকে অন্তর্ভুক্তির দাবিও জানানো হবে এই দেশগুলিকে।

আরও পড়ুন: মাসুদ আজহার কে? কন্দহর কাণ্ডই বা কী? কতটা জানেন, পরীক্ষা করে নিন

আরও পড়ুন: সেনার পোশাকে নিউজিল্যান্ডের মসজিদে বন্দুকবাজের হামলা, হত ৪০, রক্ষা বাংলাদেশ ক্রিকেটারদের

আরও পড়ুন: গুলিতে লুটিয়ে পড়ছে মানুষ, হামলার লাইভ স্ট্রিমিং করল বন্দুকবাজ!​

২০১৬ সালে পাঠানকোটে বায়ুসেনার ঘাঁটিতে জঙ্গি হানার পর থেকেই আজহারকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী ঘোষণার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে রাষ্ট্রপুঞ্জ। কিন্তু বার বার তা আটকে গিয়েছে পাকিস্তানের ‘মিত্র’ চিন ভেটো দেওয়ায়। পুলওয়ামা হামলার পর ফের চাপ বাড়ে পাকিস্তানের উপর। রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য তিন দেশ আমেরিকা, ফ্রান্স ও ব্রিটেন নতুন করে প্রস্তাব পেশ করে। কিন্তু এ বারও পথের কাঁটা সেই বেজিং। ফলে এই নিয়ে চতুর্থ বার মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী ঘোষণার প্রক্রিয়ায় প্রাচীর তুলে দিল চিন। তার পরই সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার ঘোষণা করে অন্য পথে পাকিস্তান ও আজহারের উপর চাপ বাড়াতে শুরু করল ফ্রান্স।

(আন্তর্জাতিক সম্পর্ক, আন্তর্জাতিক চুক্তি, আন্তর্জাতিক বিরোধ, আন্তর্জাতিক সংঘর্ষ- সব গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক খবর জানতে চোখ রাখুন আমাদের আন্তর্জাতিক বিভাগে।)