কাশ্মীর নিয়ে দ্বিপাক্ষিক মন কষাকষির মধ্যেই আগামী মাসের ১১ তারিখ ভারত সফরে আসছেন চিনের প্রেসিডেন্ট শি চিনফিং। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে ঘরোয়া সংলাপে যোগ দেবেন তিনি। গত বছর চিনের উহানে শুরু হয়েছিল এই ঘরোয়া সংলাপের নতুন মডেল। যার মূল কথা, কোনও নির্দিষ্ট আলোচ্যসূচি থাকবে না। আলোচনা গড়াবে বাঁধা গতের বাইরে। সর্বোপরি বৈঠক হবে দেশের রাজধানীতে নয়। আলোচনার মেজাজের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর কোনও জনপদে। 

এহেন বৈঠকের জন্য জায়গা খোঁজা শুরু করেছে সাউথ ব্লক। সূত্রের খবর, এখনও পর্যন্ত মামল্লপুরম নামে তামিলনাড়ুর এক উপকূলবর্তী শহরকে বাছা হয়েছে। চেন্নাইয়ের নিকটবর্তী এই শহরটি শুধু চোখ জুড়নোই নয়, এর সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে পল্লব রাজবংশের ঐতিহ্যও। প্রাথমিক ভাবে স্থির হয়েছিল, নরেন্দ্র মোদীর নির্বাচনী  কেন্দ্র বারাণসীতে বৈঠক হবে। কিন্তু পরে দক্ষিণ ভারতই ভাবা হচ্ছে। কারণ রাজনৈতিক শিবিরের বক্তব্য, বারাণসী-সহ উত্তর ভারতে বিজেপির পতাকা ওড়ানোর বিশেষ বাকি নেই। বারাণসীতে এর আগে ধুমধাম করে প্রবাসী ভারতীয় দিবসের অনুষ্ঠান হয়েছে। বিভিন্ন দেশের বহু প্রতিনিধিকে ডেকে গঙ্গা দেখানো হয়েছে। এ বার দক্ষিণ ভারতে পদক্ষেপ করতে আগ্রহী মোদী-অমিত শাহেরা। এই মামল্লপুরমেই আগের বছর ডিফেন্স এক্সপো-র আয়োজন করা হয়েছিল।