বন্ধুত্বের প্রতীক হিসেবে হোয়াইট হাউসের বাগানে এক সঙ্গে ওক গাছের চারা পুঁতেছিলেন দুই রাষ্ট্রনেতা, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মাকরঁ। সংবাদমাধ্যমের দৌলতে সেই ছবি দেখেছিল গোটা বিশ্ব। যদিও এর পর ইরান সমস্যা ও বাণিজ্য নীতি নিয়ে দু’দেশের সম্পর্কে চাপানউতোর শুরু হয়েছে। এরই মধ্যে জানা গেল, ২০১৮ সালে ফরাসি প্রেসিডেন্টের আমেরিকা সফরের সময়ে ট্রাম্পকে উপহার দেওয়া সেই ওক গাছটি আর বেঁচে নেই। 

উত্তর ফ্রান্সের জঙ্গল থেকে ওক গাছটিকে আনা হয়েছিল। জায়গাটির ঐতিহাসিক গুরুত্ব রয়েছে। ওই জঙ্গলেই প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময়ে দু’হাজার মার্কিন সেনা নিহত হয়েছিলেন। ট্রাম্প ও মাকরঁ হোয়াইট হাউসের বাগানে চারাগাছটি পোঁতার কিছু দিন পর থেকেই ওই জায়গায় সেটিকে আর দেখা যাচ্ছিল না। তখন জানা যায়, ভিন‌্দেশি গাছ। তাই সেটিকে কোয়ারান্টাইন (অন্য গাছ থেকে আলাদা) করে রাখা হয়েছে। তৎকালীন আমেরিকায় নিযুক্ত ফরাসি রাষ্ট্রদূত জেরার অরো জানিয়েছিলেন, যে কোনও বিদেশি জীব আমেরিকায় আনা হলে কোয়ারান্টাইন করে রাখাই দস্তুর। পরে গাছটিকে আবার হোয়াইট হাউসের বাগানে পুঁতে দেওয়া হবে। কিন্তু তা আর কখনও হয়নি। হোয়াইট হাউসের অন্দরের খবর, কোয়ারান্টাইন থাকাকালীনই মারা যায় ওক গাছটি।