বিয়ে ভাঙছে প্রাক্তন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী সারা পেলিনের। তিন দশকেরও বেশি দাম্পত্য জীবনের পর সম্প্রতি বিবাহবিচ্ছেদের জন্য আদালতে গিয়েছেন তাঁর স্বামী টড পেলিন। তাঁদের মধ্যে বনিবনা হচ্ছে না বলেই জানিয়েছেন তিনি। তবে এ নিয়ে সারা এখনও পর্যন্ত কোনও মন্তব্য করেননি।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, গত শুক্রবার আলাস্কার অ্যাঙ্করেজ সুপেরিয়র কোর্টে বিবাহবিচ্ছেদের আবেদন জমা দেন টড। তবে পুরো নাম লেখার পরিবর্তে আদালতে জমা দেওয়া নথিতে নিজেদের নামের আদ্যাক্ষর ব্যবহার করেন তিনি। নিজের আবেদনে টড জানান, তাঁদের মধ্যে একেবারেই বনিবনা হচ্ছে না। তাই স্বামী-স্ত্রী হিসাবে এক ছাদের নীচে থাকা অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে।

১৯৮৮ সালে বিয়ে করেন সারা ও টড। দুই ছেলে— ট্র্যাক সিজে, ট্রি প্যাক্সসন ভ্যান ও তিন মেয়ে— ব্রিস্টল শিরান মেরি, উইলো বিয়াঙ্কা ফায়ে এবং পাইপার ইন্ডি গ্রেসকে নিয়ে তিন দশকেরও বেশি দাম্পত্য জীবন তাঁদের। ছোট ছেলে ট্রিগ ডাউনের বয়স ১১ বছর। ডাউন সিনড্রোম রয়েছে তাঁর। তাকে নিজের কাছে রাখতে চেয়ে আদালতে আবেদন জানিয়েছেন টড।

আরও পড়ুন: শোভাযাত্রায় বেরিয়ে ক্ষেপে গেল হাতি! দেখুন কী হল তার পর...​

 সৌন্দর্য প্রতিযোগিতা থেকে টেলিভিশনের সঞ্চালক এবং পরবর্তী কালে রাজনীতিক— দীর্ঘ কেরিয়ারে বরাবর খবরের শিরোনামে থেকেছেন সারা পেলিন। এক সময় সবচেয়ে আকর্ষণীয় রাজনীতিকের তকমাও পেয়েছিলেন। ২০০৬-২০০৯ পর্যন্ত আলাস্কার গভর্নর ছিলেন তিনি। ২০০৮ সালে বারাক ওবামার বিরুদ্ধে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে দাঁড়ান রিপাবলিকান সেনেটর প্রয়াত জন ম্যাকেইন। সেই সময় ওবামা ঘনিষ্ঠ জো বিডেনের বিরুদ্ধে ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন সারা পেলিন। কিন্তু বারাক ওবামার বিপুল জনপ্রিয়তার সামনে মাথা তুলে দাঁড়াতেই পারেননি তাঁরা।

আরও পড়ুন: ট্রাম্প-তালিবান বৈঠক বাতিল, স্বস্তির নিশ্বাস দিল্লির​

সেই থেকে নিজের বই প্রকাশ এবং টেলিভিশনের বিভিন্ন অনুষ্ঠান নিয়েই ব্যস্ত হয়ে পড়েন সারা। আলটপকা মন্তব্য করে একাধিক বার বিতর্কেও জড়িয়ে পড়েন। পরবর্তী কালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে দাঁড়ানোর চিন্তা ভাবনা করলেও, শেষমেশ সরে আসেন তিনি। সেই থেকে প্রচারের আলো থেকে দূরেই ছিলেন। তবে বিবাহবিচ্ছেদের খবরে নতুন করে ফের তাঁকে নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে।