তাইল্যান্ডের দক্ষিণ অংশে ক্রাবি প্রদেশে সমুদ্রে একাই ঘুরে বেড়াচ্ছিল একটি বাচ্চা দুগং। সমুদ্রের মধ্যে বাচ্চা দুগংটির একা ঘুরে বেড়ানো দেখে সন্দেহ হয় সংরক্ষণবিদদের। তাঁদের মনে হয় এই দুগং নিশ্চয় অনাথ হয়ে পড়েছে। তার পর সেই দুগংকে উদ্ধার করে তাইল্যান্ডের ডিপার্টমেন্ট অব মেরিন অ্যান্ড কোস্টাল রিসোর্সেস। উদ্ধারের সময় ছোট্ট দুগংটিকে আদর করার ভিডিয়ো ছড়িয়ে পড়ে নেটদুনিয়ায়। তার পরই ভাইরাল হয়েছে সেই ভিডিয়ো।

দুগং হল এক ধরনের সামুদ্রিক স্তন্যপায়ী প্রাণী। এদের সামুদ্রিক গরুও বলা হয়। ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন অব কনজারভেশন ফর নেচার এই দুগংকে অতি বিপন্ন প্রাণী হিসাবে চিহ্নিত করেছে। কিন্তু তাইল্যান্ডের কাছে এদের এখনও দেখা পাওয়া যায়। তাই অনাথ হয়ে পড়া বাচ্চা দুগংটিকে একা ঘুরতে দেখে তাঁকে উদ্ধার করতে দেরি করেননি সংরক্ষণবিদরা।

বাচ্চা দুগংটির নাম দেওয়া হয়েছে মারিয়ম। ভাইরাল হওয়া সেই ভিডিয়োটিতে দেখা যাচ্ছে, মারিয়মকে উদ্ধার করে আদর করছেন উদ্ধারকারীরা। তাকে বোতলে করে দুধ খাওয়ানো হচ্ছে। অদ্ভুত দেখতে এই প্রাণীটির মানুষের কাছে আদর খাওয়া দেখে মন গলেছে নেটিদেনদের। আগামীদিনে মারিয়মের যত্নের যাতে কোনও অসুবিধা না হয়, সে জন্য খরচ দিতেও উৎসাহ দেখিয়েছেন অনেকে।এই দুগংটিকে ‘তাইল্যান্ডের সুইটহার্ট’ বলেও ডাকা হচ্ছে।

 দেখুন সেই ভিডিয়ো- 

 

আরও পড়ুন: গায়ে জড়িয়ে ৬টি পাইথন, মহারানি ব্যস্ত মোবাইলে