Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ই-পেপার

URL Copied

লাইফস্টাইল

চুমু খাওয়ার সময় চোখ কেন বন্ধ হয়ে যায় জানেন?

নিজস্ব প্রতিবেদন
৩০ নভেম্বর ২০১৮ ১২:০৩
দীর্ঘ দিন নীরোগ থাকা, হার্ট ভাল রাখার অন্যতম উপাদান নাকি জমিয়ে চুমু খাওয়া! বহু যুগ ধরেই নানা গবেষণা এমন দাবি করছে। তবে একটা বিষয় লক্ষ্য করেছেন কি, প্রেমের প্রকাশে প্যাশনেট গভীর চুমু হোক বা নেহাতই স্নেহচুম্বন— চুমুর সময় বেশির ভাগ সময়ই আমাদের চোখ বন্ধ হয়ে আসে। কেন এমনটা হয়! কখনও ভেবেছেন?

কী ভাবছেন, প্রতিবর্ত ক্রিয়ার ফলে চুমুর সময় আপনার চোখ বন্ধ হয়ে যায়? বিজ্ঞান কিন্তু তা বলছে না। গবেষকদের মতে, এই সময় মস্তিষ্কে ভাল লাগার অনুভব ছড়িয়ে পড়ে। মস্তিষ্ক একই সঙ্গে দু’টি কাজ ভাল করে করতে পারে না। তাই দর্শনেন্দ্রিয়র তুলনায় স্পর্শজনিত বিষয়কে গুরুত্ব দিয়ে চোখকে বন্ধ হয়ে যাওয়ার নির্দেশ পাঠায় মস্তিষ্ক।
Advertisement
কিন্তু কেন এমন করে মস্তিষ্ক? লন্ডন ইউনিভার্সিটির মনোবিজ্ঞানীদের মতে, দৃষ্টিশক্তি ও বোধশক্তি অন্য দিকে ব্যস্ত থাকলে আমাদের সেন্সরি অর্গানরা আর কোনও ইন্দ্রিয়কে অত গুরুত্ব দেয় না। তাই চোখ খোলা থাকলে চুমু থেকে  সার্বিক আনন্দ মেলে না। জোর করে চুমু খেতে গেলে ঠিক তার উল্টো প্রতিক্রিয়া দেখায় মগজ।

যে কোনও আনন্দদায়ক বিষয়কে উপভোগ করতে গেলে চোখের পেশীরা শিথিল হয়ে যায়। তাই ভাল গান শোনা বা সুস্বাদু রান্না চেখে দেখার সময়ও চুমু খাওয়ার সময়ের মতোই চোখ বন্ধ হয়ে আসে।
Advertisement
ভালবাসার মানুষের শরীরের প্রতিও স্বাভাবিক চাহিদা থাকে তাঁর পার্টনারের। চুমুর সময় তাঁর শরীরের গন্ধ ও ত্বকের অনুভব দ্রুত মস্তিষ্কে পোঁছয়। হৃদগতি বেড়ে যায়। এমন সময় চোখ খোলা থাকলে এই গন্ধ ও ত্বকের স্বাদ বয়ে বেড়ানোর পথে বাধা পায় মস্তিষ্ক। তাই চোখ বন্ধ করে ভাললাগার অনুভবকে সে ছড়িয়ে দেয় মন-শরীর জুড়ে।

এ তো গেল জীববিদ্যার ব্যাখ্যা। মনোবিদ্যাও অবশ্য এর নেপথ্যে বেশ কিছু কারণকে দায়ী করেছে। মনোবিদদের মতে, চোখ বুজে চুমু খেলে উল্টো দিকের মানুষটার প্রতি আস্থা ও ভরসা প্রদর্শন করা হয়। পার্টনারের প্রতি সুসম্পর্ক থাকলে চুম্বনের সময় আমাদের মনে সেই ভাব আরও প্রকট হয়ে ওঠে। তাই চোখ বুজে যায় সহজে।

কোনও ভয় বা দুশ্চিন্তার সময় ভালবাসার প্রকাশ আমাদের হার্টকে অনেকটা মজবুত রাখে। নিজের মানুষের প্রতি আত্মসমর্পনের উপায় খুঁজতে থাকে মন। সেই সময় চুমুর ছোঁয়া পেলে হৃদগতি বাড়ে, যৌন উদ্দীপক হরমোন ক্ষরিত হয়। এতে নিজেকে উজাড় করে দেওয়ার বা সবটুকু আনুগত্য প্রকাশ করার ইচ্ছা থেকেই চোখ বন্ধ হয়ে যায়।

আরও এক মজার কারণ এর জন্য দায়ী বলে দাবি মনোবিদদের। তাঁদের মতে, পাবলিক প্লেসে হোক বা বন্ধ ঘরে— চুমু এতই ব্যক্তিগত বিষয় যে তা অন্য কারও সামনে প্রকাশ করতে নারাজ অনেকেই। তাই গোপনীয়তা বজায় রাখার টেনশন এতটাই গ্রাস করে যে, এমন সময় নিজেরাও চোখ বুজে ফেলি আমরা!