Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড কোনও ভাবেই ঢুকছে না শরীরে? অজান্তেই এই সব অসুখ ডেকে আনছেন কিন্তু

ওমেগা থ্রি নিয়মিত খেলে দূরে রাখা যায় অনেক অসুখবিসুখ। কী কী সে সব?

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২০ ডিসেম্বর ২০১৯ ১২:২৫
Save
Something isn't right! Please refresh.
প্রয়োজনীয় পলিস্যাচুরেটে়ড ফ্যাটি অ্যাসিডের মধ্যে অন্যতম এই ওমেগা থ্রি। ছবি: শাটারস্টক।

প্রয়োজনীয় পলিস্যাচুরেটে়ড ফ্যাটি অ্যাসিডের মধ্যে অন্যতম এই ওমেগা থ্রি। ছবি: শাটারস্টক।

Popup Close

অসুখবিসুখের সঙ্গে লড়াই হোক বা চোখ-হাড়ের যত্ন, ফ্যাটি অ্যাসিডের উপস্থিতি বিনা সবই প্রায় অসম্পূর্ণ। ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিডের চাহিদা তাই বরাবরই তুঙ্গে। শরীরের ভিতরে নানা কাজকর্ম চালাতে যে সব পলিস্যাচুরেটে়ড ফ্যাটি অ্যাসিডের প্রয়োজন হয়, তার মধ্যে অন্যতম এই ওমেগা থ্রি।

শরীরের প্রয়োজনীয় ওমেগা থ্রি’র চাহিদা মেটাতে খাবার পাতে নজর দিতে বলেন চিকিৎসকরা। স্যামন, টুনা-সহ নানা সামুদ্রিক মাছে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিডের উপস্থিতি বিপুল পরিমাণে থাকে। ওমেগা থ্রি-র চাহিদা মেটাতে অনেকেই এই ধরনের ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ ক্যাপসুলও খেয়ে থাকেন।

জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ গৌতম গুপ্তর মতে, ‘‘যেহেতু অন্যান্য ফ্যাটের মতো শরীর ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড আলাদা করে শরীর তৈরি করতে পারে না, তাই এই ধরনের ফ্যাটি অ্যাসিডকে বাইরের খাবারদাবার বা ক্যাপসুল থেকেই গ্রহণ করতে হয়। কেবল শরীরেরই নয়, মনের স্বাস্থ্যের উপরও এটি বিশেষ কারিকুরি দেখায়। সামুদ্রিক মাছই এর প্রধান উৎস হলেও আলফা লিনোলেনিক অ্যাসিড গোত্রের ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিডদের পাওয়া যায় কিছু সব্জি, সয়া ও ক্যানোলা তেলেও।’’

Advertisement

ওমেগা থ্রি নিয়মিত খেলে দূরে রাখা যায় অনেক অসুখবিসুখ। কী কী সে সব?

চোখের স্বাস্থ্য: ডিএইচএ জাতীয় ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিডের অভাব হলে তার সরাসরি প্রভাব পড়ে চোখে। রেটিনার সমস্যা, ম্যাকিউলার ডিজেনারেশনের মতো স্থায়ী চোখের অসুখ, ক্ষীণ দৃষ্টির সমস্যা এড়াতে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড খুবই প্রয়োজনীয়।



ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিজ দিয়েই দূরে রাখুন চোখের অসুখ।

মনের স্বাস্থ্য: নানা গবেষণায় ইতিমধ্যেই প্রমাণিত, শিশুদের অ্যাটেনশন ডেফিসিট হাইপারঅ্যাকটিভিটি ডিজঅর্ডার (এডিএইচডি)-এর মতো বিহেভিওরাল ডিজঅর্ডারের অন্যতম কারণ ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিডের অভাব। মনোযোগের অভাব, শিশুদের স্মৃতিশক্তি কমে যাওয়া, ইত্যাদি নানা সমস্যারই দাওয়াই ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড।

রোগ প্রতিরোধ: শরীরের রোগ প্রতিরোধী ক্ষমতাকে বাড়িয়ে তুলতেও ওমেগা থ্রি-র ভূমিকা অনেকটাই। কোষের ক্ষয়ক্ষতি মেরামত করে ক্ষতিকর, নষ্ট হয়ে যাওয়া কোষগুলিকে দ্রুত মেরে ফেলে সেখানে নতুন কোষ তৈরি ও তা বিভাজনে বিশেষ সহযোগিতা করে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড।

হতাশা ও উদ্বেগের দাওয়াই: বিষাদ, একটানা কোনও ভয়, স্নায়বিক দুর্বলতার কারণেও হতাশা ও মানসিক উদ্বেগের জন্ম হয়। আমেরিকার মেন্টাল হেলথ অ্যাসোসিয়েশনের গবেষকদের দাবি, ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিডের প্রাচুর্য এই দুর্বলতাকেই বাড়তে দেয় না। স্নায়ুকে শক্ত সামর্থ করে অবসাদ কাটাতে সাহায্য করে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড। গবেষণায় প্রমাণিত, উদ্বেগে আক্রান্ত রোগীরা প্রতি দিন ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড নেওয়ার পর তাদের মানসিক অবস্থা আগের চেয়ে অনেকটাই উন্নত হয়েছে। তাই মানসিক স্বাস্থ্যের বেলায় ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিডকে অন্যতম দাওয়াই হিসেবে গণ্য করেছেন বিশেষজ্ঞরা।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement