Advertisement
২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Pet Love

Summer petcare: সারা ক্ষণের সঙ্গী বিড়াল কিংবা কুকুর? গরমে আদরের পোষ্যর যত্ন নেবেন কী ভাবে

কুকুর-বিড়ালই হোক কিংবা মাছ-পাখি, গ্রীষ্মকালে অতিরিক্ত যত্নের প্রয়োজন সব পোষ্যেরই।

গরমকালে পোষ্যের খেয়াল

গরমকালে পোষ্যের খেয়াল ছবি: সংগৃহীত

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৭ এপ্রিল ২০২২ ১৬:৫৮
Share: Save:

বৈশাখ না আসতেই গরমে হাঁসফাঁস দশা সকলের। পোষ্যেরাও তার ব্যতিক্রম নয়। গরম বাড়লে কষ্ট পায় বাড়ির সাধের পোষ্যরাও। কুকুর-বিড়ালই হোক কিংবা মাছ-পাখি, গ্রীষ্মকালে অতিরিক্ত যত্নের প্রয়োজন সকলেরই। বিশেষত কুকুরের মতো লোমশ পোষ্যদের এই সময় অনেকটাই বেশি খেয়াল রাখার প্রয়োজন হয়।

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি। ছবি: সংগৃহীত

১। অতিরিক্ত উষ্ণতায় কুকুরের হিটস্ট্রোক ও জলশূন্যতায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার ঝুঁকি খুব বেড়ে যায়। গরমকালে কুকুরকে বাড়ির ভিতরে ছায়ায় রাখতে হবে। রোদে বার করা চলবে না একেবারেই। প্রয়োজনে জানলায় লাগাতে হবে পর্দা। ঘরের তাপমাত্রা যেন ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কম থাকে। যদি বাড়িতে শীতাতপ নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা থাকে, তবে সেই ঘরেই রাখতে হবে পোষ্যকে।

২। বিড়াল, কুকুর কিংবা পাখিকে বিশুদ্ধ ও ঠান্ডা জল খাওয়াতে হবে নিয়মিত। জল দেহের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে। প্রয়োজনে বাড়ির বিভিন্ন প্রান্তে একাধিক পাত্রে জল রেখে দিতে হবে। এতে কুকুর ও বিড়ালের জল খাওয়ার প্রবণতা বাড়বে। খাবারের সঙ্গে মিশিয়ে দিতে পারেন হরেক রকমের রসালো ফল।

৩। মাছেরও গরম লাগে। শুনতে অদ্ভুত লাগলেও এক এক রকমের মাছ এক এক রকমের উষ্ণতার জলে ভাল থাকে। খেয়াল রাখবেন জলের উষ্ণতা যেন কোনও মতেই ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি না হয়। অ্যাকোয়ারিয়ামের জল বদলাতে হবে নিয়মিত। প্রতি সপ্তাহে ৩০ থেকে ৫০ শতাংশ জল বদলে দিলে মাছের স্বাস্থ্য ভাল থাকে।

৪। পোষ্যকে ভাল করে স্নান করাতে হবে নিয়মিত। প্রয়োজনে দিনে একাধিক বার স্নান করানো যেতে পারে। কুকুরকে স্নান করানোর সময়ে স্নানের জলে মিশিয়ে দিতে পারেন অল্প বরফের টুকরোও। পাখিকে স্নান করানোর সময়ে এক পাস থেকে অল্প করে জল ছেড়ে দিন, দেখবেন কিছু ক্ষণ পর পাখিগুলি নিজেই এসে জলের ধারার নীচে দাঁড়াবে।

৫। লোম বেশি রয়েছে এমন কুকুর পুশলে গায়ের লোম বেশি ছাঁটা যাবে না। শরীরের লোম বড় থাকলে গরম বেশি লাগবে, এই ধারণা ঠিক নয়। বরং এই লোমই দেহের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে। পাশাপাশি পোষ্যের থাকার জায়গাটিতে যেন হাওয়া চলাচলের যথেষ্ট সুযোগ থাকে। গরমের দিনে ভেজা তোয়ালের উপরেও শুতে দিতে পারেন বিড়াল কিংবা কুকুরকে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE