×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২০ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

গোটা ডিম না এগ হোয়াইট? সুস্থ থাকতে কোনটা খাবেন?

নিজস্ব প্রতিবেদন
১৮ ডিসেম্বর ২০১৫ ১৬:০৬

ডিম খেতে প্রায় সকলেই ভালবাসেন। শরীরের জন্যও অত্যন্ত উপকারী ডিম। অথচ কোলেস্টেরল, মোটা হয়ে যাওয়ার চিন্তায় ডিম প্রায় ভিলেন হতে বসেছে। ওজন কমাতে ভরসা এগ হোয়াইট। তবে খেতে কি আর ভাল লাগে? লোভে পড়ে গোটা ডিম খেলেই মনে অপরাধ বোধ। জেনে নিন ডিম ভাল না এগ হোয়াইট।

১। ক্যালরি- ক্যালরি মেপে খেতে চাইলে এগ হোয়াইট খান। একে ক্যালরির পরিমাণ ১৭। তবে এনার্জি পেতে চাইলে ব্রেকফাস্টে অবশ্যই খান গোটা ডিম। ক্যালরির পরিমাণ ৫৪।

২। ফ্যাট- একই ভাবে ডিমের সাদা অংশে ফ্যাটের পরিমাণ শূন্য। গোটা ডিমে ৩.৬ গ্রাম। তাই ওজন ঝরাতে এগ হোয়াইট ভাল হলেও এনার্জি জোগাতে চাই গোটা ডিম।

Advertisement

৩। প্রোটিন- এই উপাদানে কিন্তু গোটা ডিমের থেকে খুব একটা পিছিয়ে নেই এগ হোয়াইট। গোটা ডিমের ১০ শতাংশ প্রোটিন। এগ হোয়াইটে প্রোটিন সাত শতাংশ।

৪। কোলেস্টেরল- গোটা ডিমে কোলেস্টেরলের পরিমাণ যেখানে ৪৭ শতাংশ, এগ হোয়াইটে এর পরিমাণ শূন্য।

৫। অক্সিজেন ট্রান্সপোর্টিং আয়রন- গোটা ডিমে আয়নের পরিমাণ চার শতাংশ। এগ হোয়াইটে শূন্য। এই আয়রন কিন্তু শরীরের পক্ষে অত্যন্ত উপকারী।

পড়ুন সানডে হো ইয়া মনডে, রোজ খাও আন্ডে

৬। ফসফরাস- হাড় সুস্থ রাখতে অবশ্যই গোটা ডিম খান। এতে ফসফরাস রয়েছে আট শতাংশ। সাদা অংশে কিন্ত এর পরিমাণ মাত্র ০.৪ শতাংশ।

৭। জিঙ্ক- গোটা ডিমে জিঙ্কের পরিমাণ তিন শতাংশ। যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে অত্যন্ত উপকারী। এগ হোয়াইটে জিঙ্কের পরিমাণ শূন্য। তাই অসুখ করলে কিন্তু অবশ্যই গোটা ডিম খাবেন।

৮। ফোলেট- যদি আপনি রক্তাল্পতার সমস্যায় ভোগেন তাহলে গোটা ডিমই শ্রেয়। এতে ফোলেটের পরিমাণ পাঁচ শতাংশ। যা রক্তকোষ গঠনে সহায়ক। এগ হোয়াইটে ফোলেট শূন্য।

৯। ভিটামিন এ- শিশুদের কখনই এগ হোয়াইট দেবেন না। এতে ভিটামিন এ থাকে না। যেখানে গোটা ডিমে ভিটামিন এ-র পরিমাণ চার শতাংশ। ভিটামিন এ শিশুদের দৃষ্টিশক্তি গঠনে সাহায্য করে। চোখের সমস্যা থাকলেও অবশ্যই গোটা ডিম খান।

পড়ুন সুস্থ থাকতে ডিম থান, তবে হাফ বয়েল নয়

১০। ভিটামিন ডি- বয়স বাড়লে মহিলাদের অবশ্যই ওজনের চিন্ত না করে গোটা ডিম খাওয়া উচিত্। এতে ভিটামিন ডি-এর পরিমাণ আট শতাংশ। যা ক্যালসিয়ামের উত্কৃষ্ট উত্স। হাড় সুস্থ রাখতে, গাঁটে ব্যথা, বাতের সমস্যা রুখতে জরুরি ক্যালসিয়াম। এগ হোয়াইটে ক্যালিয়ামের পরিমাণ শূন্য।

১১। কোলিন- হার্ট সুস্থ রাখতে জরুরি কোলিন। ডায়েটেশিয়ানরা বলেন প্রতি দিনের ডায়েটে ৪২৫ গ্রাম কোলিন থাকা দরকার। গোটা ডিমে এর পরিমাণ ২৬ শতাংশ। এগ হোয়াইটে কোলিনের পরিমাণ শূন্য।

১২। কার্টেনল্ড- দৃষ্টিশক্তি সুস্থ রাখতে জরুরি কার্টেনল্ড। চিকিত্সকরা বলেন প্রতি দিন অন্তত ১০ মিলিগ্রাম কার্টেনল্ড প্রয়োজন। গোটা ডিমে এর পরিমাণ কত জানেন? ১৯১ মিলিগ্রাম। আর এগ হোয়াইটে শূন্য।

Advertisement