সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দস্তানার সঙ্গে দোস্তি

নিউ নর্মাল জীবনযাপনে মাস্কের দোসর গ্লাভস। কিন্তু দস্তানার ব্যবহারবিধি ঠিকমতো জানতে হবে

Gloves

সারা দিনের কাজের চাপ পড়ে হাত দুটোর উপরে। রাস্তাঘাটে, বাড়িতে বেশির ভাগ কাজের জন্যই হাতের উপরে নির্ভর করতে হয়। তার উপরে এই করোনা আতঙ্ক। তাই দু’-তিনজোড়া দস্তানা নিজের সংগ্রহে রাখা জরুরি। এতে হাতের ত্বকও নষ্ট হবে না। সুরক্ষিতও থাকবেন অনেকটা।

 

কোথায় কেমন?

বাড়িতে আনাজপাতি, মাছমাংস ধুয়ে জীবাণুমুক্ত করাটা এখন রুটিন হয়ে গিয়েছে। ফলে জল ঘাঁটাও হচ্ছে বেশি। সেই কাজে রবারের গ্লাভস রাখতে পারেন হাতে। এতে জলের সরাসরি সংস্পর্শে আসবে না ত্বক। ফলে ত্বকের ক্ষতি হবে না। সব কাজ হয়ে গেলে গ্লাভস খুলে একবার হাত ধুয়ে নিলেই মিটে গেল।

• বাথরুম পরিষ্কার করার সময়ে ডিসপোজ়েবল গ্লাভস পরার চেষ্টা করুন। এই ধরনের গ্লাভস একবার ব্যবহারের পরে ডিসপোজ় করে দিন।

• ফ্যাশন ডিজ়াইনার অভিষেক দত্ত বললেন, ‘‘রাস্তাঘাটে বেরোনোর সময়ে নিরাপত্তার সঙ্গে ফ্যাশনও বজায় রাখতে চান অনেকেই। 

সে ক্ষেত্রে ফক্স লেদারের (কৃত্রিম চামড়া) গ্লাভস পরতে পারেন। দেখতেও ফ্যাশনেবল লাগে। আর এগুলি ওয়াশেবল। ফলে বাড়ি ফিরে সাবানজলে ধুয়েও নিতে পারেন। স্যানিটাইজ়ও করে নেওয়া যায়।’’ 

• ফ্যাব্রিকের গ্লাভস পরা যায়। কিন্তু খুব কম সময়ের জন্য বাইরে গেলে বা কমপ্লেক্সের ছাদে বা লনে ঘুরলে পরতে পারেন। খুব বেশি সময়ের জন্য বাইরে গেলে ফ্যাব্রিক গ্লাভস পরলে সাবধান থাকুন। এই গ্লাভস ভিজে গেলে কিন্তু সুরক্ষা শেষ। ফ্যাব্রিকের গ্লাভস পরতে চাইলে ভিতরে একটা ডিসপোজ়েবল গ্লাভস পরে তার উপরে পরতে পারেন। অনেকে আঙুল বার করে রাখা গ্লাভসও পরেন। তবে এই করোনা পরিস্থিতিতে এ ধরনের গ্লাভস না পরাই ভাল।

 

ব্যবহারবিধি

• অনেকেই গ্লাভস পরে রাস্তায় বেরোন। কিন্তু তার পর তা খোলা-পরা করেন। এতে কিন্তু দস্তানা পরায় কোনও লাভ হবে না। দস্তানা পরে বাড়ি থেকে বেরোলে বাড়ি ফেরা পর্যন্তই সেটা পরে থাকতে হবে। ঠিক যেমন মোজা পরে বাড়ি থেকে বেরোন, বাড়ি ফিরে তা খোলেন, দস্তানার ব্যবহারও তেমন হবে। 

• বাইরে বেরিয়ে দস্তানা যদি খুলতেই হয়, তা হলে কিছু নিয়ম মানতে হবে। ধরুন, আপনি অফিসে পৌঁছে গ্লাভস খুলে রাখতে চান। সে ক্ষেত্রে তা রাখার জন্য সঙ্গে একটা ব্যাগ রাখুন। দস্তানা খুলে সেই ব্যাগে ঢুকিয়ে দিন। সাধারণত আঙুলের মাথাই সব কাজে ব্যবহার হয়। তাই গ্লাভস রাখার সময়ে আঙুলের মাথা ও কবজির অংশ মেলাবেন না। এ বার হাত ভাল করে স্যানিটাইজ় করে নিয়ে কাজ করুন। আবার গ্লাভস পরার সময়ে সাবধানে কবজির অংশ ধরে পরুন। 

• গ্লাভস পরলেও বাড়ি ফিরে বা খাওয়ার আগে হাত সাবান দিয়ে ধুতে হবে।

 

টুকিটাকি

• গ্লাভসের মেটিরিয়াল দেখে কিনুন। তার অ্যাবজ়র্বিং সারফেস কার্যকর কি না বুঝে কিনতে হবে। 

• যে গ্লাভসই ব্যবহার করুন না কেন, বাইরে থেকে এসে তা সাবানজলে ডুবিয়ে ঘষে ঘষে ভাল করে ধুয়ে রোদে শুকিয়ে নিতে হবে। 

• দু’-তিন জোড়া গ্লাভস রাখতে পারেন। কারণ প্রত্যেক বার ব্যবহারের পরেই গ্লাভস কেচে নিয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করতে হবে। 

• বাড়িতে রান্নাঘরের কাজে, বাথরুমের কাজে বা বাইরে বেরোনোর জন্য আলাদা গ্লাভস রাখুন। বাজারদোকান করা ও অফিসে যাওয়ার জন্যও আলাদা গ্লাভস রাখলে ভাল। এতে গ্লাভস টিকবেও অনেক বেশি দিন।

• গ্লাভস পরার আগে হাতের তালুতে ভাল করে পাউডার লাগিয়ে নিন। এতে তালু ঘামবে না। 

দস্তানা সাধারণত শীতকালেই পরা হয়ে থাকে। কিন্তু এখন প্রশ্ন যখন সুরক্ষার, তখন না হয় রোজই হাত ধরা থাকুক দস্তানার।

 

মাস্ক ও গ্লাভস: ডিজ়াইনার অভিষেক দত্ত (মডেলের ছবি)

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন