তিন মাস পর আবার অর্থমন্ত্রকের দায়িত্বভার নিলেন অরুণ জেটলি। কিডনি সংক্রান্ত অসুস্থতার জন্য গত এপ্রিল মাস থেকে ছুটিতে ছিলেন তিনি।  

তাঁর অনুপস্থিতিতে মন্ত্রকের দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন রেলমন্ত্রী পীযুষ গয়াল। যদিও অসুস্থতার মধ্যেও মন্ত্রকের বিভিন্ন আধিকারিকদের সঙ্গে নিয়মিত ভিডিয়ো কনফারেন্স করে বৈঠক করতেন অরুণ জেটলি। দেশের নানা প্রান্তে অর্থমন্ত্রকের বিভিন্ন অনুষ্ঠানেও ভিডিয়ো রেকর্ডিং-এর মাধ্যমে তাঁর বক্তব্য শোনানো হত। যে কারণে গত তিনমাস ধরেই জারি ছিল বিভ্রান্তি। অরুণ জেটলি নাকি পীযুষ গয়াল? অর্থমন্ত্রকের দায়িত্ব আসলে কার হাতে, তা জানতে চেয়ে বার বার সরকারপক্ষকে বিব্রতও করেন বিরোধীরা।

এই মাসের শুরুতে রাজ্যসভায় ডেপুটি চেয়ারম্যান পদে ভোটাভুটির সময় জেটলিকে প্রথম প্রকাশ্যে দেখা যায়। তিনি যে সুস্থ হচ্ছেন তা তখনই বোঝা যায়। মন্ত্রকে না এলেও গত কয়েকদিন সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। বিরোধীদের আক্রমণ করার পাশাপাশি জিএসটি-র হার কমানোর সপক্ষে যুক্তি, সব কিছু নিয়েই সরব ছিলেন জেটলি। শেষ পর্যন্ত বৃহস্পতিবার তাঁর অর্থমন্ত্রকে ফেরার বিজ্ঞপ্তি জারি করলেন রাষ্ট্রপতি। শেষ হল তাঁর থাকা না থাকা নিয়ে জল্পনা।

আরও পড়ুন: জার্মানিতেও আলিঙ্গনের পথে রাহুল

আরও পড়ুন: আলোচনার লক্ষ্যেই কি কাশ্মীরে সত্যপাল

ভারতের রাজনীতি, ভারতের অর্থনীতি- সব গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে আমাদের দেশ বিভাগে ক্লিক করুন।