• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

অরুন্ধতী ‘দেশদ্রোহী’, সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোল চলছেই

24sironam-paresh
অশোক পন্ডিত ও অরুন্ধতী রায়। সংগৃহীত ছবি।

Advertisement

অরুন্ধতী রায়কে নিয়ে বিতর্কিত টুইট করে ইতিমধ্যেই সংবাদ শিরোনামে বিজেপি সাংসদ তথা অভিনেতা পরেশ রাওয়াল। কাশ্মীরে বিক্ষোভকারীদের বদলে বুকারজয়ী লেখিকা তথা সমাজকর্মী অরুন্ধতী রায়কে সেনা জিপে বেঁধে ঘোরানো উচিত বলে মন্তব্য করেছিলেন তিনি। আর ওই টুইটকে সমর্থন করে আরও একটি বিতর্কিত মন্তব্য করেন বিজেপি-ঘনিষ্ঠ গায়ক অভিজিত। এ বার সেই খাতায় যোগ হল আরও একটি নাম। ওই টুইটকেই সমর্থন করে অরুন্ধতীকে ‘দেশদ্রোহী’র তকমা দিলেন চিত্রনির্মাতা এবং সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ফিল্ম সার্টিফিকেশনের সদস্য অশোক পন্ডিত। একই সঙ্গে রাওয়ালের টুইটের তীব্র নিন্দা করে পাল্টা টুইট করেন অভিনেত্রী স্বরা ভাস্কর এবং বিবেক অগ্নিহোত্রী।

পন্ডিত বলেছেন, ‘পরেশ রাওয়ালের বিবৃতিকে আমি মন থেকে সমর্থন করি। কারণ তাঁর মতামত সত্য ও বাস্তব। অরুন্ধতী রায় দেশদ্রোহী। তিনি কাশ্মীরের বিক্ষোভকারীদের সমর্থন করেন।’ এর সঙ্গেই তিনি যোগ করেন, শুধু অরুন্ধতী নন, আরও অনেকেই এমন আছেন যাঁদের সেনা জিপে বেঁধে ঘোরানো উচিত ছিল।

সম্প্রতি কাশ্মীরে সেনার জিপে এক বিক্ষোভকারীকে বেঁধে ‘মানব ঢাল’ করে ঘোরানোর ভিডিও ঘিরে নিন্দার ঝড় বয়ে গিয়েছে দেশজুড়ে। সম্প্রতি সেই ঘটনায় জড়িত মেজর লিতুল গগৈকে সম্মানিত করেছে সেনা। শ্রীনগরে লোকসভা উপনির্বাচনের সময়ে বিক্ষোভকারী সন্দেহে ফারুক আহমেদ দার নামে স্থানীয় এক যুবককে সেনা জিপের বনেটে বেঁধে একটি এলাকা পার হন গগৈ। যদিও সেনার দাবি ছিল, পাথর ছোড়া রুখতেই মানব ঢাল হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছিল ওই যুবককে। যদিও পরে জানা যায়, ওই যুবক মোটেই বিক্ষোভকারী ছিলেন না। বরং বিক্ষোভের উল্টো পথে হেঁটে তিনি উপ-নির্বাচনে ভোট দিয়েছিলেন।

এটাই এখন কাশ্মীরের নিত্যকার ছবি। ছবি: এএফপি।

কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লা-সহ অনেকেই বিষয়টির পূর্ণাঙ্গ তদন্ত দাবি করেছিলেন। সে সময় ঘটনাটির বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছিলেন অরুন্ধতী রায়ও। আর সেই বক্তব্যকেই কটাক্ষ করে পরেশ রাওয়ালের টুইট ছিল, ‘ওই বিক্ষোভকারীর বদলে বরং অরুন্ধতী রায়কে জিপের সঙ্গে বেঁধে ঘোরানো উচিত ছিল।’

আরও পড়ুনছাত্রীর বিরুদ্ধে অশালীন মন্তব্য, গায়ক অভিজিতের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করল টুইটার

পরেশের এই টুইটের পরই নিন্দার ঝড় বয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। পরেশকে কটাক্ষ করে একের পর এক টুইট-রিটুইট শুরু হয়। রাওয়ালের বক্তব্যের নিন্দা করে টুইট করেন কংগ্রেস নেতা দিগ্বিজয় সিংহ। তীব্র সমালোচনা করেন কংগ্রেস মুখপাত্র অভিষেক মনু সিঙ্ঘভিও। তিনি বলেন, ‘‘বর্তমান শাসক দল যে ভিন্ন মত সহ্য করতে নারাজ, তা এ থেকেই স্পষ্ট।’’

 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন