• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

হাসপাতালের পাঁচ তলা থেকে তিন মাসের শিশুকে ছুড়ে ফেলে দিলেন মা!

representational photo
প্রতীকী ছবি।

Advertisement

তিন মাসের শিশু। জন্মের পর থেকেই ভুগছিল জন্ডিসে। গায়ের রংটাই হয়ে গিয়েছিল হলুদ। কাঠি কাঠি হাত। কাঠি কাঠি পা।

মা আর সহ্য করতে পারলেন না। হাসপাতালের পাঁচ তলা থেকে সটান নীচে ছুঁড়ে ফেলে দিলেন শিশুটিকে।

গল্প নয়, সত্যি। ঘটনাটি ঘটেছে লখনউয়ের কিংস জর্জ মেডিক্যাল ইউনিভার্সিটি (কেজিএমইউ) হাসপাতালের ট্রমা সেন্টারে। সোমবার। পুলিশ ওই মহিলাকে খুনের অভিযোগে গ্রেফতার করেছে।

তদন্তে জানা গিয়েছে, ঘটনার সময় হাসপাতালের পাঁচ তলার ওয়ার্ডের সামনের বারান্দায় ক্লান্তিতে ঘুমোচ্ছিলেন ওই মহিলার স্বামী ও এক আত্মীয়। নিজের তিন মাসের শিশুটিকে ছুঁড়ে ফেলে দেওয়ার পর ভয়ে ওয়ার্ডে ফিরে এসে হইচই বাধিয়ে দেন ওই মহিলা। বলতে থাকেন, ওয়ার্ড থেকে তাঁর শিশুটি নিখোঁজ হয়ে গিয়েছে। শিশুটিকে চুরি করা হয়েছে বলেও তিনি হাসপাতালের কর্মীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করতে থাকেন।

আরও পড়ুন- খবর দিল ফেসবুক, পিকনিক গার্ডেনে যুবকের আত্মহত্যা রুখল কলকাতা পুলিশ​

আরও পড়ুন- খেজুরিতে তৃণমূল-বিজেপির সংঘর্ষ, মাঝে পড়ে গুলিবিদ্ধ ৩ বছরের শিশু​

তার পর হাসপাতালের পাঁচ তলার বারান্দার সিসিটিভি ফুটেজ দেখে পুলিশ বুঝতে পারে, ওই মহিলাই তাঁর শিশুটিকে বারান্দা থেকে ছুঁড়ে ফেলে দিয়েছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, গত ২৩ এপ্রিল গোরক্ষপুরের বিআরডি মেডিক্যাল কলেজে জন্মের পর থেকেই জন্ডিসে কাবু হয়ে পড়ে শিশুটি। গত ২৬ মে তাকে ভর্তি করানো হয় লখনউয়ের কিংস জর্জ মেডিক্যাল ইউনিভার্সিটি (কেজিএমইউ) হাসপাতালে।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন