অলওয়ার গণধর্ষণ কাণ্ডের শিকার তরুণীর বাড়িতে গেলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গাঁধী। তাঁর পরিবারের সঙ্গে দেখা করে আশ্বাস দিলেন, ‘‘ন্যায় মিলবেই।’’ 

অলওয়ারে ধর্ষণের ঘটনার পর থেকে রাজস্থানের কংগ্রেস সরকারের সমালোচনায় মুখর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী থেকে বিএসপি নেত্রী মায়াবতী। তাঁরা এ-ও অভিযোগ করেছেন, অশোক গহলৌতের সরকার ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেছে। মোদীর ওই মন্তব্য নিয়ে আজ কোনও কথা বলতে চাননি রাহুল। শুধু বলেন, ‘‘একটাই কথা, এই মেয়েটি ও তাঁর পরিবার সুবিচার পাবে। আমি এখানে কোনও রাজনীতি করতে আসেনি। খুবই বেদনাদায়ক ঘটনা। আক্রান্তদের সঙ্গে দেখা করতে এসেছি।’’ 

গত ২৬ এপ্রিল স্বামীর সঙ্গে মোটরবাইক করে ফিরছিলেন তরুণী। অভিযোগ, সে সময়ে এক দল লোক তাঁদের মোটরবাইক আটকায়। দম্পতিকে একটি পরিত্যক্ত জমিতে নিয়ে যায়। সেখানে স্বামীকে মারধর করা হয় এবং তাঁর স্ত্রীকে ধর্ষণ করে তারা। দম্পতির অভিযোগ, থানায় জানিয়েও কাজ হয়নি। ৩০ এপ্রিল তাঁরা পুলিশের কাছে যান। ২ মে এফআইআর নেয় পুলিশ। কিন্তু ৭ মে (রাজ্যে শেষ দফা ভোট) পর্যন্ত কোনও পদক্ষেপ করেনি পুলিশ। আজ পুলিশ জানিয়েছে, ছয় অভিযুক্তের সবাইকে গ্রেফতার করা হয়েছে। 

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

আজ রাহুল গাঁধীর সঙ্গে সাংবাদিক বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌত। বলেন, ‘‘মোদী সরকার একের পর এক মিথ্যে কথা বলে যাচ্ছে।’’ আক্রান্তদের রাজ্য সরকার চাকরি দেবে বলেও জানিয়েছেন গহলৌত। রাহুল জানান, যে মুহূর্তে ওই ঘটনার কথা তাঁর কানে এসেছিল, গহলৌতকে ফোন করে জানিয়েছিলেন, তিনি রাজস্থানে আসবেন। বলেন, ‘‘আক্রান্তেরা সুবিচার পাবেন। দোষীদের উপযুক্ত শাস্তি হবে। শুধু রাজস্থান নয়, গোটা দেশের কাছে এই বার্তা যাওয়া উচিত, এ ধরনের ঘটনা সহ্য করা হবে না।’’