তাঁর বিধানসভা কেন্দ্রে রাস্তার দুরবস্থার প্রতিবাদে পূর্ত দফতরের ইঞ্জিনিয়ারদের অফিসের সামনে ধর্নায় বসেছিলেন সিপিআই বিধায়ক গীতা গোপী। দলিত সম্প্রদায়ের ওই বিধায়কের ধর্নাস্থল গোবরজল দিয়ে ‘শুদ্ধকরণে’র অভিযোগ উঠল যুব কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। শনিবার ঘটনাটি ঘটেছে কেরলের ত্রিশূর জেলায় চেরপ্পু গ্রামে। ওই ঘটনায় যুব কংগ্রেসকে নিশানা করেছে কেরলের বাম শিবির।

যুব কংগ্রেসের কর্মী-সমর্থকদের সমালোচনা করে কেরলের সংস্কৃতি মন্ত্রী এ কে বালান বলেন, ‘‘এই ধরনের অনুষ্ঠান সাধারণত উত্তর ভারতে হয়ে থাকে। এ সব বরদাস্ত করা যায় না।’’