কাশ্মীরের অনন্তনাগে জঙ্গি হামলায় প্রাণ হারালেন পাঁচ সিআরপি জওয়ান। গুরুতর আহত হয়েছেন আরও পাঁচ জন। তাঁদের মধ্যে জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের এক ইনস্পেক্টর ও স্থানীয় এক বাসিন্দা রয়েছেন। জওয়ানদের পাল্টা গুলিতে নিহত এক জঙ্গিও।

উপত্যকার কুখ্যাত জঙ্গি মুশতাক আহমেদ জারগার নেতৃত্বাধীন পাকিস্তানি জঙ্গি সংগঠন আল-উমর মুজাহিদিন এই হামলার দায় স্বীকার করেছে বলে জানিয়েছে কাশ্মীরের সংবাদ সংস্থা গ্লোবাল নিউজ সার্ভিস (জিএনএস)। ১৯৯৯ সালে কান্দাহার বিমান ছিনতাইয়ের সময় মাসুদ আজহার সহ এই জারগারকে ছাড়তে বাধ্য হয়েছিল ভারত সরকার। তবে সেনার তরফে এখনও পর্যন্ত এ নিয়ে কোনও মন্তব্য করা হয়নি।

সেনা সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার দক্ষিণ কাশ্মীরের অনন্তনাগে ব্যস্ত কেপি চকের কাছে বাসস্ট্যান্ডে টহল দিচ্ছিলেন সিআরপি জওয়ানরা। সেই সময় মোটরসাইকেলে চড়ে সেখানে হাজির হয় দু’জন জঙ্গি। কালো কাপড়ে মুখ ঢাকা ছিল তাদের। জওয়ানদের লক্ষ্য করে স্বয়ংক্রিয় আগ্নেয়াস্ত্র থেকে এলোপাথাড়ি গুলি ছুড়তে শুরু করে তারা। ছোড়া হয় গ্রেনেডও।

অনন্তনাগের থানার এসএইচও আরশাদ আহমেদ জানান, হামলায়  পাঁচ জন জওয়ান প্রাণ হারিয়েছেন। আহত হয়েছে আরও পাঁচ জন। চিকিৎসার জন্য তাঁদের শ্রীনগর নিয়ে যাওয়া হয়েছে। গুলি বিনিময় চলে সেখানে। এলাকায় আর কোনও জঙ্গি লুকিয়ে রয়েছে কি না, তাও দেখা হচ্ছে।

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের YouTube Channel - এ।