• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

১০ বছরে ৩৯টি প্রসব তিহাড়ে, অন্তঃসত্ত্বা সফুরার জামিনের বিরোধিতায় যুক্তি দিল্লি পুলিশের

Safoora Zargar
সফুরা জারগার। ছবি: ফেসবুক থেকে সংগৃহীত।

শুধুমাত্র অন্তঃসত্ত্বা বলেই কাউকে জামিন দিতে হবে, এই যুক্তি গ্রহণযোগ্য নয়। দিল্লির জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়ার রিসার্চ স্কলার এবং সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ)বিরোধী আন্দোলনের কর্মী সফুরা জারগারের জামিনের বিরোধিতা করে এমনটাই জানাল দিল্লি পুলিশ। তাদের যুক্তি, গত ১০ বছরে দিল্লির তিহাড় জেলে ৩৯ জন মহিলা সন্তান প্রসব করেছেন। তাই শুধুমাত্র গর্ভবতী বলেই কারও বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগকে লঘু করে দেখা উচিত নয়।

রাস্তা অবরোধ করে সিএএ বিরোধী আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়া এবং দিল্লি হিংসায় ইন্ধন জোগানোর অভিযোগে গত ১০ এপ্রিল ২৭ বছর বয়সি সফুরাকে গ্রেফতার করে দিল্লি পুলিশ। চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা সফুরার বিরুদ্ধে বেআইনি কার্যকলাপ প্রতিরোধ আইনও (ইউএপিএ) প্রয়োগ করা হয়।  সেই থেকে তিহাড় জেলে বন্দি রয়েছেন তিনি। স্বাস্থ্যজনিত কারণ দেখিয়ে জামিনের আর্জি জানালে, তিন-তিন বার সফুরার আর্জি খারিজ করে দিল্লির পটিয়ালা হাউসকোর্ট।

পটিয়ালা হাউসকোর্টের সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সম্প্রতি দিল্লি হাইকোর্টে নতুন করে সফুরার জামিনের আর্জি জানান সফুরার আইনজীবী। সেখানে সোমবার সফুরাকে নিয়ে রিপোর্ট জমা দেয় দিল্লি পুলিশ। তাতে বলা হয়, ‘‘জঘন্য অপরাধের জন্য জেলবন্দি কেউ গর্ভবতী হলে তাঁদের বিশেষ ছাড় দিতে হবে, এমন কোথাও বলা নেই। বরং জেল হেফাজতে থাকাকালীন তাঁদের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা এবং চিকিৎসার সুবিধার কথা বলা রয়েছে আইনে। ’’

আরও পড়ুন: শব্দের গুরুত্ব বুঝে কথা বলা উচিত প্রধানমন্ত্রীর, গালওয়ান ইস্যুতে মোদীকে খোঁচা মনমোহনের​

গর্ভবতী মহিলাদের শুধুমাত্র গ্রেফতার এবং আটকই নয়, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মেনে জেলের মধ্যে তাঁদের প্রসবের সবরকম ব্যবস্থাও রয়েছে বলে জানায় দিল্লি পুলিশ। তাদের কথায়, ‘‘দিল্লির এই জেলে গত ১০ বছরে ৩৯টি ডেলিভারি হয়েছে। ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত সফুরা জারগারকে বিশেষ সুবিধা দিতে হবে, এমনটা কোথাও বলা নেই। বিশেষ করে তাঁর কাজকর্মের জেরে যখন প্রাণহানি এবং সম্পত্তির ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।’’

জেলের মধ্যে সফুরাকে আলাদা কুঠুরির মধ্যে রাখা হয়েছে। সেখানে পুষ্টিকর খাবার-দাবার জোগানোর পাশাপাশি, চিকিৎসক এসে নিয়মিত তাঁকে দেখে যান বলেও দিল্লি পুলিশের তরফে আদালতে জানানো হয়। সেইসঙ্গে রিপোর্টে বলা হয়, উস্কানিমূলক ভাষণ নিয়ে সফুরা সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা তৈরিতে ইন্ধন জুগিয়েছিলেন এবং গণতান্ত্রিক ভাবে নির্বাচিত একটি সরকারকে উৎখাত করতে ষড়যন্ত্র করেছিলেন। 

আরও পড়ুন: কাশ্মীর থেকে ঢুকেছে ৪-৫ জঙ্গি? দিল্লিতে জঙ্গি হানার সতর্কতা​

এর আগে, সফুরা জারগারের জামিনের পক্ষে আর্জি জানায় মার্কিন আইনজীবী সংগঠন ‘দ্য আমেরিকান বার অ্যাসোসিয়েশন সেন্টার ফর হিউম্যান রাইটস’ও। একটি বিবৃতি প্রকাশ করে তারা জানায়, সফুরাকে জেলে বন্দি করে রাখা আন্তর্জাতিক আইন-বিরোধী কাজ। মঙ্গলবার সফুরার জামিনের আর্জির পরবর্তী শুনানি করবে দিল্লি হাইকোর্ট।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন