দুই বিচারপতির পদোন্নতিতে কেন্দ্রের আপত্তি ধোপে টিঁকল না সুপ্রিম কোর্টে। কেন্দ্রীয় আইন মন্ত্রকের বক্তব্য খারিজ করে দিয়ে সুপ্রিম কোর্টের কলেজিয়াম বৃহস্পতিবার জানিয়ে দিল, ঝাড়খণ্ড হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি অনিরুদ্ধ বোস ও গুয়াহাটি হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি এ এস বোপান্নার পদোন্নতি হচ্ছে। দু’জনকেই নিয়ে আসা হচ্ছে শীর্ষ আদালতে।

পদোন্নতির জন্য এই দুই প্রবীণ বিচারপতির নাম গত ১২ এপ্রিল সুপারিশ করেছিল সুপ্রিম কোর্টের কলেজিয়াম। কিন্তু বুধবার সেই দু’টি নামই ফেরত পাঠায় কেন্দ্রীয় আইন মন্ত্রক। কেন্দ্রের যুক্তি ছিল, ওই দুই বিচারপতিকে শীর্ষ আদালতে আনা হলে সিনিয়রিটিকে অগ্রাহ্য করা হবে। প্রাধান্য পাবে আঞ্চলিক প্রতিনিধিত্ব।

বিচারপতি হিসেবে ঝাড়খণ্ড হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি অনিরুদ্ধ বোসের কর্মজীবন শুরু হয়েছিল যেখানে, সিনিয়র বিচারপতিদের সংখ্যার নিরিখে সেই কলকাতা হাইকোর্ট এখন দেশের অন্য হাইকোর্টগুলির মধ্যে রয়েছে ১২ নম্বরে। আর গুয়াহাটি হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি এ এস বোপান্না তাঁর কর্মজীবন শুরু করেছিলেন যেখানে, সেই কর্নাটক হাইকোর্ট রয়েছে ৩৬ নম্বরে।

দিল্লি হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি হিসেবে গত বছর সুপ্রিম কোর্টের কলেজিয়াম বিচারপতি অনিরুদ্ধ বোসের নাম সুপারিশ করেছিল। কিন্তু তখনও একই কারণে আপত্তি জানিয়েছিল কেন্দ্রীয় আইন মন্ত্রক।

আরও পড়ুন- কোর্টকে উদ্ধৃত করা ভুল, ক্ষমা চাইলেন রাহুল​

আরও পড়ুন- ‘চৌকিদার’ মামলায় সুপ্রিম কোর্টের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলেন রাহুল গাঁধী​

এ দিন কেন্দ্রের আপত্তি খারিজ করে দিয়ে দুই বিচারপতিকে শীর্ষ আদালতে নিয়ে আসার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত জানাতে গিয়ে সুপ্রিম কোর্টের কলেজিয়াম বলেছে, ‘‘যোগ্যতা, নিষ্ঠা ও সততা ছাড়াও বিচারপতি বোস ও বিচারপতি বোপান্নার নাম বিবেচনা করতে গিয়ে সর্বভারতীয় স্তরে সব প্রধান বিচারপতি ও সিনিয়র বিচারপতির সিনিয়রিটি খতিয়ে দেখা হয়েছে। মাথায় রাখা হয়েছে সব হাইকোর্টের প্রতিনিধিত্ব সুপ্রিম কোর্টের বেঞ্চে থাকছে কি না, সেই বিষয়টিও।’’

এই মুহূর্তে সুপ্রিম কোর্টে মোট বিচারপতি রয়েছেন ২৭ জন। যেখানে প্রধান বিচারপতি-সহ শীর্ষ আদালতে মোট বিচারপতি থাকার কথা সর্বাধিক ৩১ জন।

শীর্ষ আদালতের বেঞ্চে প্রতিনিধিত্ব করার জন্য ইতিমধ্যেই কলকাতা হাইকোর্ট থেকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বিচারপতি ইন্দিরা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। অন্য দিকে বিচারপতি এস এম মল্লিকার্জনাগৌড়া ও বিচারপতি এস আবদুল নাজিরকে কর্নাটক হাইকোর্ট নিয়ে যাওয়া হয়েছে সুপ্রিম কোর্টে।

বোম্বে হাইকোর্টের বিচারপতি বি আর গাভাই ও হিমাচল প্রদেশ হাইকোর্টের ভাবী প্রধান বিচারপতি সূর্য কান্তের নামও কলেজিয়াম কেন্দ্রের কাছে সুপারিশ করেছে সুপ্রিম কোর্টের বেঞ্চে তাঁদের নিয়ে আসার জন্য। তবে সেই ব্যাপারে এখনও কেন্দ্র ‘হ্যাঁ’ বা ‘না’ কিছুই বলেনি বলে শীর্ষ আদালত সূত্রের খবর।