• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘ফিরিয়ে দাও আমার সাইকেল’, দোকানির বিরুদ্ধে অভিযোগ লিখে থানায় হাজির খুদে

cycle
সাইকেল ফিরে পাওয়ার পর আবিন ও তার ভাইয়ের ছবি ফেসবুকে শেয়ার করেছে কেরল পুলিশ।

Advertisement

টাকা নিয়েও দু’মাস ধরে সাইকেল মেরামতি করে ফিরিয়ে দিচ্ছিলেন না দোকানদার। বারবার ফোন করেও তাঁর সাড়া পাওয়া যাচ্ছিল না। শেষে অভিযোগ লিখে পুলিশের দ্বারস্থ হল ১০ বছরের এক খুদে। যা দেখে মুগ্ধ কেরল পুলিশ অতিসক্রিয় হয়ে সাইকেল ফিরিয়ে দিল তাকে।

১০ বছরের ওই খুদের নাম আবিন। কোঝিকোড়ের ভিলায়াত্তুর ইলামপিলাদ এলপি স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র সে। নিজের স্কুলের নোটবুকের পাতা ছিঁড়ে গত ২৫ নভেম্বর  মেপ্পায়ুর  থানায় গিয়ে পুলিশের কাছে অভিযোগ জানিয়েছে সে। অভিযোগে সে লিখেছে, ‘দু’মাস হয়ে গেল আমরা আমাদের সাইকেল ফেরত পাচ্ছি না। সাইকেল মেরামতির দোকানদার আমাদের থেকে অগ্রিম ২০০ টাকা নিয়ে রেখেছেন। কিন্তু তাঁকে ফোনে পাওয়া যাচ্ছে না, আমরা যখনই দোকানে যাই দেখি দোকান বন্ধ করা রয়েছে।’ সে আরও লিখেছে, আমাদের বাড়িতে কেউ নেই যে দোকানে গিয়ে খোঁজ নিয়ে আসবেন। তাই বাধ্য হয়েই পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছে সে।

চিঠিতে আমরা বলতে সে নিজেকে এবং তার ভাইয়ের কথা বলতে চেয়েছে। তাদের দুজনের সাইকেলই মেরামতির জন্য ৫ সেপ্টেম্বর থেকে ওই দোকানে পড়ে রয়েছে।

আবিনের লেখা অভিযোগপত্র। এই ছবিটাও ফেসবুকে শেয়ার করেছে কেরল পুলিশ।

আরও পড়ুন: গডসে মন্তব্যে ক্ষমা চাইলেন প্রজ্ঞা, জঙ্গি বলায় পাল্টা তোপ রাহুলকে, সংসদে তুমুল বাগবিতণ্ডা

এমন একটা অভিযোগপত্র দেখে মুগ্ধ হয়ে যায় কেরল পুলিশ। খুব তাড়াতাড়ি সাইকেল তাদের ফিরিয়ে দেওয়া হবে, আশ্বাস দেয় তাকে। সে দিনই পুলিশ ওই দোকানদারের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। দোকানদার জানান, তিনি অনেকদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন, তার উপর ছেলের বিয়ের জন্য অনেকদিন ধরেই ব্যস্ত, তাই দোকান খুলতে পারছেন না। ২৮ নভেম্বরের মধ্যেই তিনি সাইকেল দুটো মেরামতি করে ফিরিয়ে দেওয়ার কথা দেন।

ছবি: কেরল পুলিশের ফেসবুক পেজ।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন