ভিভিপ্যাট বিতর্কে কমিশনের বক্তব্য তলব
ভোট যন্ত্রের ৫০ শতাংশ ভিভিপ্যাট যাচাই করা হোক দাবি তুলে একজোট বিরোধীরা সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। এ নিয়ে নির্বাচন কমিশনের বক্তব্য জানতে চাইল সুপ্রিম কোর্ট।
VVPAT

৫০ শতাংশ ভিভিপ্যাট যাচাই করা হোক দাবি তুলে একজোট বিরোধীরা সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন।

যে চিহ্নে বোতাম টেপা হচ্ছে, সেই চিহ্নেই ভোট পড়ছে কি না, তা নিশ্চিত করতে ভোট যন্ত্রের ৫০ শতাংশ ভিভিপ্যাট যাচাই করা হোক দাবি তুলে একজোট বিরোধীরা সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। এ নিয়ে নির্বাচন কমিশনের বক্তব্য জানতে চাইল সুপ্রিম কোর্ট।

অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নায়ডু, এনসিপির শরদ পওয়ার, কংগ্রেসের কে সি বেণুগোপাল, তৃণমূলের ডেরেক ও’ব্রায়েন, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবাল-সহ ২৩ জন বিরোধী নেতা একজোট হয়ে সুপ্রিম কোর্টে দাবি জানিয়েছেন, প্রতিটি লোকসভা কেন্দ্র বা বিধানসভা কেন্দ্রে ৫০ শতাংশ ইভিএম-ভিভিপ্যাট যেমন খুশি যাচাই করা হোক। ইভিএম নিয়ে প্রশ্ন ওঠায় বিরোধীরা এই দাবি তোলেন। ৬টি জাতীয় ও ১৭টি আঞ্চলিক দলের নেতাদের যুক্তি ছিল, তাঁরা দেশের ৭০ থেকে ৭৫ শতাংশ মানুষের প্রতিনিধিত্ব করেন। অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের স্বার্থেই তাঁরা এই দাবি করছেন।

আজ কংগ্রেসের একটি প্রতিনিধি দলও নির্বাচন কমিশনের কাছে একই দাবি করেছে। কংগ্রেসের দাবি, পেট্রল পাম্প, স্টেশন, বিমানবন্দর থেকে প্রধানমন্ত্রীর ছবি সরানো হোক। কংগ্রেসের অভিযোগ, বিজেপি শাসক দল হিসেবে আদর্শ আচরণ বিধি লঙ্ঘন করছে। নরেন্দ্র মোদীর ছবি-সহ সরকারি প্রকল্পের পোস্টার নানা জায়গায় ঝুলছে। কংগ্রেস মুখপাত্র আর পি এন সিংহের দাবি, কমিশন তাঁদের অভিযোগ নিয়েছেন। ওই সব হোর্ডিং সরানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তা নিয়ে রিপোর্টও চাওয়া হয়েছে।

বিজেপির মন্ত্রীরা রাহুল গাঁধীর বিরুদ্ধে অশালীন মন্তব্য করছেন বলেও কংগ্রেস অভিযোগ জানায়। তাদের দাবি, এই অভিযোগের ভিডিয়ো চেয়েছে কমিশন। বুধবারই রাহুল গাঁধীর বিরুদ্ধে রাফাল নিয়ে প্রমাণ ছাড়াই অভিযোগ তুলে আদর্শ আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ জানিয়েছিল বিজেপি। 

 দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯ 

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত