• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নিজেকে মোদীর ঘনিষ্ঠ বোঝাতে নাছোড় চিরাগ

nitish
রামবিলাস পাসোয়ানের শ্রাদ্ধানুষ্ঠানে ছেলে চিরাগের দু’পাশে নীতীশ কুমার ও তেজস্বী যাদব। পটনায়। পিটিআই

এনডিএ জোটে থেকে লড়ছেন না। মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারকে রোজই আক্রমণ করছেন। তবে বিহার ভোটের আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ প্রয়াত রামবিলাস পাসোয়ানের পুত্র চিরাগ। প্রধানমন্ত্রী দেশকে বার্তা দেবেন বলে ঘোষণা করার পরেই আজ মাঠে নেমে পড়েন চিরাগ।

নিজে টুইট করে বলেন, ‘‘প্রধানমন্ত্রী মোদী আজ দেশের মানুষকে কিছু গুরুত্বপূর্ণ কথা শোনাবেন। নাগরিকদের কাছে আমার অনুরোধ, জাতীয় স্বার্থে সেই কথাগুলি আপনারা শুনবেন।’’ উৎসবের মরসুমে করোনা নিয়ন্ত্রণের ব্যাপারে মোদী কিছু কথা বলতে পারেন বলে জল্পনা ছিল। সেই প্রসঙ্গেও লোক জনশক্তি পার্টির  কর্মীদের উদ্দেশে বার্তা দিয়েছেন রামবিলাস-পুত্র। বলেছেন, করোনা আবহে সামাজিক দূরত্বের বিষয়টি নিয়ে তাঁদের সতর্ক থাকতে হবে।

বিহারের ভোটে নীতীশ কুমারের প্রতিপক্ষ হিসেবে নিজেকে তুলে ধরলেও বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলছেন চিরাগ। আশা করছেন, ভোটের পর বিজেপির সঙ্গে মিলে রাজ্যে সরকার গড়তে পারবেন তাঁরা। চিরাগ যে ভাবে নীতীশকে রোজই নিশানা করছেন, তা থেকে দূরত্ব রাখছে বিজেপি। এমনকি, ভোটের প্রচারে মোদীর নাম ও ছবি ব্যবহার না করার জন্যও তাঁকে সতর্ক করা হয়েছে। কিন্তু বিজেপি সূত্রের খবর, নীতীশকে চাপের মধ্যে রাখতে চিরাগকে ব্যবহারও করতে চাইছেন দলের কেন্দ্রীয় নেতারা। মোদীর প্রতি শ্রদ্ধা বোঝাতে পিছিয়ে নেই চিরাগও। সম্প্রতি তিনি ঘোষণা করেন, মোদীর ছবি নিয়ে প্রচার করার প্রয়োজন নেই তাঁর। ‘‘মোদীজি আমার হৃদয়ে রয়েছেন। হনুমানের যেমন রামের প্রতি শ্রদ্ধা, তেমনি আমার বুক চিড়ে ফেললে মোদীজিকে খুঁজে পাওয়া যাবে’’— মন্তব্য করেছেন চিরাগ। উল্টে তাঁর দাবি, নীতীশের এখন মোদীকে প্রয়োজন। কারণ, জেডিইউ নেতা নিপারপত্তাহীনতায় ভুগছেন। 

আরও পড়ুন: টিকায় আবশ্যিক নয় ডিজিটাল স্বাস্থ্যকার্ড: কেন্দ্র

বিহারের ভোটে চিরাগ যেমন রামবিলাসের উত্তরাধিতার ধরে রাখতে চাইছেন, তেমনি ভোট প্রচার অনুপস্থিত, জেলবন্দি লালুপ্রসাদ যাদবের রাজনীতিকে সামনে নিয়ে আসার চেষ্টা চালাচ্ছেন তাঁর পুত্র তেজস্বী। রাজ্যে পাঁচ দলের মহাজোটের নেতৃত্ব দিচ্ছেন তিনি। বিরোধী দলের অনেকেই দাবি করছেন, লালু ভোটপ্রচারে থাকতে না পারলেও প্রার্থী চূড়ান্ত করার ব্যাপারে বিশেষ ভূমিকা নিয়েছেন।  এ দিকে, ভোটের আগে বিহারে রাজনৈতিক দলগুলির চাপানউতোর জমে উঠেছে। বিজেপি সভাপতি জেপি নড্ডা আজ কংগ্রেসকে ‘দেশ বিরোধী’ আখ্যা দিয়ে বলেন, ভারতের কোথাও ভোট হচ্ছে আর রাহুল গাঁধীর নেতৃত্বে কংগ্রেস পাকিস্তানের প্রশংসা করে বেড়াচ্ছে। রাজ্যে ভোট প্রচারে এসে যোগী আদিত্যনাথ আজ দাবি করেন, অযোধ্যা, কাশ্মীর ও পাকিস্তানের বিষয়ে প্রতিশ্রুতি পালন করেছে বিজেপি।

আরও পড়ুন: কৃষি আইন নাকচ, বিল পাশ পঞ্জাবে

আজই কুটুম্বা বিধানসভা কেন্দ্রে কংগ্রেস প্রার্থীর হয়ে প্রচারে গিয়েছিলেন তেজস্বী যাদব। তিনি মঞ্চে থাকাকালীন তাঁকে নিশানা করে এক ব্যক্তি চপ্পল ছুড়ে মারে। সেটি গিয়ে লাগে তেজস্বীর পায়ে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন