শনিবার ভয়াবহ বিপর্যয়ের মুখোমুখি হয়েছে সৌদি আরবের তেল উত্তোলনকারী সংস্থা আরামকো। তার ধাক্কা গিয়ে লেগেছে বিশ্ব বাজারেও। তবে,এই পরিস্থিতির মধ্যেও ভারতকে অপরিশোধিত তেল সরবরাহে কোনও ঘাটতি হবে না বলেই জানিয়েছে আরামকো।

পেট্রোলিয়ম মন্ত্রক সূত্রে জানা গিয়েছে, আরামকো আশ্বাস দিয়েছে, এই বিপর্যয়ের ফলে ভারতীয় তৈল শোধনাগারগুলিতে সরবরাহের ক্ষেত্রে কোনও প্রভাব পড়বে না। শনিবারের ঘটনার পর যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে সেদিকে নজর রাখছে পেট্রোলিয়াম মন্ত্রক।

শনিবার ড্রোন হামলা চালিয়ে সৌদি আরবের রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা ‘আরামকো’-র একটি তেলের খনি ও বিশ্বের সব চেয়ে বড় তেল শোধনাগার কেন্দ্রে আগুন লাগিয়ে দেয় ইয়েমেনের হুথি জঙ্গিরা। এই ঘটনার পর বিশ্ব জুড়েই তেলের দাম বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা তৈরি হচ্ছিল। কারণ, শনিবারের হামলার পরে অপরিশোধিত তেলের উৎপাদন দৈনিক ৫০ লক্ষ ব্যারেল কমেছে। যা বিশ্বব্যাপী উৎপাদনের ৫ শতাংশ। রবিবার সৌদির স্টক এক্সচেঞ্জ খুলতেই সেই আশঙ্কা সত্যি প্রমাণিত হয়। সোমবার অপরিশোধিত তেলের দাম কয়েক মুহূর্তেই ব্যারেল প্রতি ১২ ডলার বেড়ে যায়।

আরও পড়ুন: প্রয়োজনে আমি নিজে যাব, জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে মামলায় পরিস্থিতি নিয়ে বললেন প্রধান বিচারপতি

এই হামলা নিয়ে শুরু থেকেই ইরানের দিকেই আঙুল তুলছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। রবিবার, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প টুইট করেন,‘আমরা জানি অপরাধী কে। এর পিছনে বিশ্বাসযোগ্য যথেষ্ট কারণও রয়েছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সতর্ক ও প্রস্তুত রয়েছে। তদন্তের উপর নির্ভর করছে।’ যদিও, আগেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এই অভিযোগ  উড়িয়ে দিয়েছে ইরান।

আরও পড়ুন: এই প্রথম কোনও জনসভায় মোদী-ট্রাম্প, হিউস্টনে ‘হাউডি-মোদী’ ঘিরে আশা দু’দেশের