প্যান কার্ডের সঙ্গে আধার নম্বর সংযুক্তির সময় আরও ছ’মাস বাড়ানো হল। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময়সীমা বাড়াল দ্য সেন্ট্রাল বোর্ড অব ডিরেক্ট ট্যাক্সেস (সিবিডিটি)। তার মধ্যে আধার সংযুক্তিকরণের কাজ সেরে ফেলতে হবে বলে জানানো হয়েছে। তবে সময়সীমা বাড়ানো হলেও, আয়কর রিটার্নের ক্ষেত্রে এই নিয়ম প্রযোজ্য হবে না। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মতো সেখানে আধার নম্বর দেওয়া বাধ্যতামূলকই থাকবে।

আধার ও প্যান সংযুক্তিকরণ নিয়ে রবিবার একটি বিবৃতি জারি করে সিবিডিটি। তাতে বলা হয়, ‘‘আধার নম্বর সংযুক্তিকরণ না করে থাকলে ৩১ মার্চের পর সমস্ত প্যান কার্ড বাতিল হয়ে যাবে বলা হয়েছিল। এ নিয়ে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরের জেরে উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি নিয়ে আলাপ আলোচনার পর মূলত সাধারণ মানুষের কথা ভেবে আধার সংযুক্তিকরণের সময়সীমা ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

এর আগে ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে কেন্দ্রীয় সরকারের আধার প্রকল্পকে সাংবিধানিক বলে ঘোষণা করেছিল সুপ্রিম কোর্ট। আয়কর রিটার্ন জমা এবং প্যান কার্ড তৈরির সময় আধার বাধ্যতামূলক করা হয়েছিল। তাই প্যান কার্ডের সঙ্গে আধার সংযুক্তিকরণের সময়সীমা বাড়ালেও, ১ এপ্রিল থেকে আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার সময় আধার কার্ডের সংযুক্তিকরণ বাধ্যতামূলক থাকবে বলেই জানিয়েছে সিবিডিটি। যদি না আয়করদাতা বিশেষ কোনও ছাড় পেয়ে থাকেন ।

আরও পড়ুন: আর্থিক বছরের শুরুতেই শেয়ার বাজারে ‘বুল রান’, নতুন উচ্চতায় সেনসেক্স-নিফটি​

আরও পড়ুন: ধোঁয়াশা মিটিয়ে সফল উত্‌ক্ষেপণ, শত্রু রেডারে নজরদারি চালাবে ভারতের ‘এমিস্যাট’​

এই নিয়ে ষষ্ঠবার প্যান কার্ডের সঙ্গে আধার সংযুক্তিকরণের সময়সীমা বাড়াল কেন্দ্রীয় সরকার। এর আগে ২০১৭ সালে প্রথমে ৩১ জুলাই পর্যন্ত সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছিল। পরে যা বাড়িয়ে যথাক্রমে ৩১ অগস্ট ও ৩১ ডিসেম্বর করা হয়। ২০১৮ সালেও ৩১ মার্চ থেকে সময়সীমা বাড়িয়ে ৩০ জুন করা হয়। পরে তা বাড়ানো হয় এ বছর ৩১ মার্চ পর্যন্ত।

(ভারতের রাজনীতি, ভারতের অর্থনীতি- সব গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে আমাদের দেশ বিভাগে ক্লিক করুন।)