• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘অসত্যাগ্রহী’, রেওয়া সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্প নিয়ে মোদীকে কটাক্ষ রাহুলের

rahul
রাহুল গাঁধী। ফাইল চিত্র।

হিন্দিতে একটি মাত্র শব্দ টুইট করলেন তিনি— ‘অসত্যাগ্রহী’। টুইটটি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর দফতরকে ট্যাগও করেছেন তিনি। রাজনৈতিক মহলের ব্যাখ্যা, রাহুল গাঁধী তাঁর করা ওই টুইটে আসলে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকেই কটাক্ষ করতে চেয়েছেন।  রেওয়া সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্প নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যা বলেছেন, তা যে সত্য নয়, সে কথা বোঝাতেই ‘অসত্যাগ্রহী’র মতো শব্দ রাহুল লিখেছেন বলে ওই মহলের ব্যাখ্যা।

শুক্রবার মধ্যপ্রদেশের রেওয়ায় এশিয়ার বৃহত্তম সৌরবিদ্যুৎ প্ল্যান্টের উদ্বোধন করেন মোদী। ওই প্রকল্প সম্পর্কে তিনি মন্তব্য করেন, “রেওয়ায় আজ ইতিহাস নির্মাণ হল। এত দিন নর্মদা নদী এবং সাদা বাঘের জন্য রেওয়ার খ্যাতি ছিল। আজ থেকে এশিয়ার বৃহত্তম সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্পের তকমাও রেওয়ার গায়ে জড়িয়ে গেল।” ‘এশিয়ার বৃহত্তম সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্প’— এই শব্দবন্ধেই আপত্তি রাহুল গাঁধী তথা কংগ্রেসের। শনিবার টুইটারে মোদীর বিরুদ্ধে সরব হয়ে রাহুল সেটাই বোঝাতে চেয়েছেন। নাম না করে প্রধানমন্ত্রীকেই ‘অসত্যাগ্রহী’ বলে তিনি কটাক্ষ করেছেন বলে রাজনৈতিক মহলের ব্যাখ্যা।

অন্য দিকে, রেওয়া সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্পকে কেন এশিয়ার বৃহত্তম বলা হল, তা নিয়ে তীব্র আপত্তি জানিয়েছেন কর্নাটকের কংগ্রেস নেতা ডি কে শিবকুমারও। তাঁর কথায়, “কর্নাটকের পাভাগড় সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্প ২ হাজার মেগাওয়াটের। সেখানে রেওয়ার প্রকল্প ৭৫০ মেগাওয়াটের। তিন বছর আগে পাভাগড় প্রকল্পটি তৈরির কাজ শেষ হয়। ২০১৮ থেকে প্ল্যান্টটি চালু হয়েছে।” এর পরেই তাঁর প্রশ্ন, ‘‘যেখানে ২ হাজার মেগাওয়াটের একটা সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্প রয়েছে, তার পরেও প্রধানমন্ত্রী কী ভাবে রেওয়ার প্রকল্পকে এশিয়ার বৃহত্তম বলে ঘোষণা করলেন?’’ কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎমন্ত্রীকে এর জবাবদিহি করতে হবে বলেও দাবি করেছেন শিবকুমার। যদিও কংগ্রেসের এই সমালোচনার কোনও প্রতিক্রিয়া কেন্দ্রের তরফে এখনও মেলেনি।

আরও পড়ুন: করোনা-যুদ্ধে নজির গড়েছে ধারাবী বস্তি: ভূয়সী প্রশংসায় হু

৭৫০ মেগাওয়াটের রেওয়া সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্পটি  দেড় হাজার হেক্টর জমিতে গড়ে তোলা হয়েছে। এই ‘সোলার পার্ক’-এ তিনটে শক্তি উৎদনকারী ইউনিট রয়েছে। প্রত্যেকটি ইউনিটের উৎপাদন ক্ষমতা ২৫০ মেগাওয়াট করে। রেওয়া আলট্রা মেগা সোলার লিমিটেড (আরইউএমএসএল), সোলার এনার্জি কর্পোরেশন অব ইন্ডিয়া(এসইসিআই) এবং মধ্যপ্রদেশ উরজা বিকাশ নিগম লিমিটেড (এমপিইউভিএন)-এর যৌথ উদ্যোগে এই প্রকল্পটি গড়ে উঠেছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন